সরকার অতিমাত্রায় বেপরোয়া ও নিষ্ঠুর : রিজভী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩০ পিএম, ১৯ আগস্ট ২০১৯

সরকারের কড়া সমালোচনা করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন ও চারবারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা সাজানো মামলায় কারবন্দি এবং জামিনে বাধা সৃষ্টি করেও আওয়ামী সরকার নিশ্চিন্তে থাকতে পারছে না। দেশের গণতন্ত্রকে কবরস্থ করে বর্তমান অবৈধ সরকার অতিমাত্রায় বেপরোয়া ও নিষ্ঠুর হয়ে উঠেছে।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে সোমবার (১৯ আগস্ট) দুপুরে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল আয়োজিত এক বিক্ষোভ মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে বিক্ষোভ মিছিলটি নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়।

রিজভী বলেন, বর্তমান অবৈধ শাসকগোষ্ঠী জনগণকে ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে কব্জায় নিয়ে সম্পূর্ণভাবে দস্যুবৃত্তির নীতিতে দেশ পরিচালনা করছে বলেই দেশে কবরের নিস্তব্ধতা বিরাজ করছে। ঝর্ণার সাথে নদীর যেমন সম্পর্ক, নদীর সাথে সমুদ্রের যেমন সম্পর্ক, মেঘের সাথে বৃষ্টির যেমন সম্পর্ক তেমনিভাবে গণতন্ত্রের সাথে বেগম জিয়ার সম্পর্ক অবিচ্ছেদ ও অবিভাজ্য। সুতরাং গণতন্ত্রের নেত্রীকে বন্দি করে প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার স্বপ্ন পূরণ হবে না।

খালেদা জিয়ার মুক্তি নিশ্চিত হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, রাষ্ট্রের কোনো মানুষই এখন নিরাপদে নেই। জানমালের সুরক্ষা চরম বিপদাপন্ন। সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনে দেশজুড়ে গুম, খুন, বিচারবহির্ভূত হত্যা, ধর্ষণ, ব্যভিচার এখন মহামারি আকার ধারণ করেছে। দেশে ন্যায়বিচার বাধাগ্রস্ত হওয়ায় সমাজবিরোধীদের দাপট বৃদ্ধি পেয়েছে। চারদিকে লুটপাট ও সমাজের সর্বত্র বিশৃঙ্খলার রমরমা রাজত্ব বিরাজমান। আইনের শাসন না থাকায় মানুষ ন্যায়বিচার পাচ্ছে না।

রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগ তাদের পুরনো বাকশালী ঐতিহ্যের ধারায় দেশ থেকে নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস করে দেয়ায় মানুষ বর্তমান সরকারের দুঃশাসন থেকে মুক্তি পেতে ঐক্যবদ্ধ ও সুসংগঠিত হচ্ছে। সরকারের প্রতিহিংসায় বেগম জিয়া কারাবন্দি থাকলেও দেশের মানুষের কাছে আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন। এ জন্যই শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী নেতাদের বুকে তীব্র জ্বালা। আমি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির পক্ষ থেকে আবারও আহ্বান জানাচ্ছি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন, জামিনে বাধা প্রদান করবেন না।

এর আগে বিক্ষোভ মিছিলে স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, সিনিয়র সহসভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াছিন আলী, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদরেজ জামান, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবিন, দক্ষিণের সভাপতি এস এম জিলানী, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক গাজী রেজওয়ান হোসেন রিয়াজ, দক্ষিণের সিনিয়র সহ-সভাপতি রফিক হাওলাদার, সাবেক কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনু মোহাম্মদ শামীম আজাদ, ওয়াহিদ বিন ইমতিয়াজ বকুল প্রমুখ অংশগ্রহণ করেন।

কেএইচ/আরএস/এমকেএইচ