তৃণমূলেরও মতামত নেবে বিএনপির হাইকমান্ড: ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:১৮ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি

কর্মকৌশল ঠিক করতে দলের হাইকমান্ড মাঠ পর্যায়ের নেতাদেরও মতামত নেবে বলে জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। দলের তৃতীয়দিনের ধারাবাহিক বৈঠকের পর বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাতে তিনি এ কথা জানান। গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বিকেল ৪টা থেকে রাত ৮টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত এই বৈঠক হয়।

ফখরুল বলেন, আমাদের তিনটি সভা হলো, এটা আজকে শেষ। আগামী শনিবার আমাদের স্থায়ী কমিটির মিটিং আছে। এই মিটিংয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নেবো আরও কয়েকটি সভা করবো কিনা। কারণ আমাদের এখনো কিছু কার্যনির্বাহী সদস্যের সঙ্গে মতবিনিময় বাকি রয়েছে। তাদের নিয়ে এবং জেলা পর্যায়ের প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারিদের নিয়ে মিটিং করার কথা আছে।

তিনি বলেন, আমরা হয়তো সেই বিষয়গুলো সিদ্ধান্ত নেবো। পরে আমরা পেশাজীবীদের সঙ্গে আলোচনা করার কথা রয়েছে। আমরা দেখি যে, স্থায়ী কমিটির বৈঠকে যদি সিদ্ধান্ত হয়, পরবর্তীতে এসব মিটিং আমরা করবো।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমাদের এসব ধারাবাহিক বৈঠকে দেশের সামগ্রিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি, কী করণীয় এবং আমাদের সাংগঠনিক অবস্থা নিয়ে আমরা কথা বলেছি। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এসব বৈঠকে সভাপতিত্ব করেছেন এবং নেতাদের মতামত শুনেছেন।

তিনটি মিটিংয়ে কী কী পরামর্শ এসেছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা সময়মতো জানতে পারবেন। আমরাই আমাদের প্রয়োজনেই তখন আপনাদেরকে জানাবো।

গত মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) শুরু হয়ে আজ বৃহস্পতিবার শেষ হলো বিএনপির এই ধারাবাহিক বৈঠক। তিনদিনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিল, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদক, সম্পাদক মন্ডলী এবং শেষদিন দলের অঙ্গসংগঠনের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজনৈতিক কর্মকৌশল ঠিক করার লক্ষ্যে নেতাদের মতামত জানতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এই বৈঠক ডাকেন।

তারেক রহমানের সভাপতিত্বে বৃহস্পতিবারের বৈঠকে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু উপস্থিত ছিলেন।

কেএইচ/ইএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]