উসওয়াতুন্নবী বাস্তবায়নে অনুপ্রেরণার মাস ‘রবিউল আউয়াল’

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩৫ পিএম, ২১ নভেম্বর ২০১৭

১৪৩৯ হিজরির রবিউল মাসের প্রথমদিন আজ। এ পবিত্র মাসেই রহমতের সুসংবাদ নিয়ে এ পৃথিবীতে আগমন করেন প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। প্রিয়নবির সম্মানের মাসব্যাপী চলবে তাঁর জীবনীর ওপর আলোচনা।

দেশব্যাপী আগামী ২ ডিসেম্বর পালিত হবে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী। এ দিন প্রিয়নবির সম্মানে থাকবে সরকারি ছুটি।

রবিউল আউয়াল মাসটি মুসলিম উম্মাহর কাছে অত্যন্ত মর্যাদাপূর্ণ এবং সেরা আবেগ-অনুভূতির মাস হিসেবে পরিগণিত। কারণ এ মাসেই ধূলির ধরাতে আগমন করেন এবং এ মাসেই তিনি ইন্তেকাল করেন রাহমাতুললিল আলামীন মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।

মুসলিম উম্মাহ এ মাসে সীমাহীন আনন্দের পাশাপাশি শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় স্মরণ করে প্রিয়নবিকে। আবার অনেক আশেকে রাসুল অশ্রু বিসর্জন দেয় প্রিয়নবির অন্তর্ধানের দুঃখে। তাঁর ভালবাসা ও আদর্শে উজ্জীবিত হওয়ার মাসে আত্মহারা পাগালপারা হয়ে ওঠে নবিপ্রেমিকরা।

নবিপ্রেমিকদের জন্য আল্লাহ তাআলা ঘোষণা করেছেন-

‘হে রাসুল! আপনি বলে দিন, তোমরা যদি আল্লাহকে ভালোবাসতে চাও, তবে আমাকে অনুসরণ কর; তবেই আল্লাহ তোমাদিগকে ভালোবাসবেন এবং তোমাদের গোনাহসমূহ ক্ষমা করে দিবেন। আর আল্লাহ হলেন ক্ষমাশীল, দয়ালু।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ৩১)

আল্লাহর এ নির্দেশ বাস্তবায়নে প্রিয়নবির জীবনী শীর্ষক আলোচনায় মুখরিত থাকবে এ পুরো রবিউল আউয়াল মাস। প্রিয়নবির আদর্শ আলোচনা ও বাস্তবায়নের অনুপ্রেরণও আসবে এ মাসে। যারা এ মাসের প্রিয়নবির আদর্শ বাস্তবায়নের সফলকাম হবে তাদের জন্যই পবিত্র রবিউল আউয়াল মাসের সব অনুষ্ঠান ও আয়োজন হবে সফল ও স্বার্থক।

সুতরাং নাম সর্বস্ব অনুষ্ঠান আয়োজনের মাধ্যমে আমরা এ মাসকে উদযাপন করতে চাই না। প্রিয়নবির পূর্ণাঙ্গ ভালোবাসা লাভে মাসব্যাপী উসওয়াতুন্নবী বা নবির আদর্শ আলোচনা করে তা বাস্তবায়নই হোক মুসলিম উম্মাহর একমাত্র কামনা।

কবি নজরুলের সেই বিখ্যাত ছন্দ যেন আমাদের জন্য সতর্কবার্তা হয়-

‘রবিউল আউয়াল এলে তোমারই গান গাই; রবিউল আউয়াল গেলে তোমায় ভুলে যাই’

এমনটি যেন না হয়। মনে রাখতে হবে মুখে মুখে প্রিয়নবিকে ভালবাসি বলে কাজে বাস্তবায়ন না করলে সে হবে প্রিয়নবির সঙ্গে সবচেয়ে বড় কপটতা। যা মারাত্মক অন্যায়।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে প্রিয়নবির জীবনী থেকে আদর্শ ও শিক্ষা বাস্তবায়নে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করার তাওফিক দান করুন। আল্লাহর নির্দেশ বাস্তবায়ন ও প্রিয়নবির ভালাবাসা অর্জনের তাওফিক দান করুন।

সর্বোপরি তাঁর ওপর নাজিলকৃত কুরআন ও তাঁর রেখে যাওয়া সুন্নাহ মোতাবেক জীবন পরিচালনা করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :