যুদ্ধ ও সংকট নিরসনে কুরআনের উদ্ধৃতি দিলেন পুতিন

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:২৮ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ভ্লাদিমির পুতিন। ক্ষমতাধর দেশ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট। ইয়ামেনের উপর সৌদির আক্রমণ ও যুদ্ধ বন্ধ করতে তিনি কুরআনের উদ্ধৃতি তুলে ধরেন।

গত সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় এক সংবাদ সম্মেলনে রাশিয়ান ভাষায় দেয়া বক্তব্যে তিনি এ উদ্ধৃতি দেন। ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন মনে করেন, ‘ইয়ামেন ও সৌদির যুদ্ধ বন্ধ ও সংকট নিরসনে উভয় পক্ষেরই আলোচনায় বসা জরুরি। পরস্পরের প্রতি ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ হওয়া জরুরি।

ইসলামের ভ্রাতৃত্বের বন্ধনের কথা স্মরণ করিয়ে দিতে তিনি কুরআনুল কারিমের সুরা আল-ইমরানের ১০৩ নম্বর আয়াত তুলে ধরেন। এ আয়াতে বলা হয়েছে-
‘তোমরা সবাই আল্লাহর রশিকে (ইসলাম ও কুরআনকে) শক্তভাবে আঁকড়ে ধর এবং পরস্পর বিচ্ছিন্ন হইও না। আর তোমাদের প্রতি আল্লাহর অনুগ্রহকে স্মরণ কর। তোমরা পরস্পর শত্রু ছিলে, তিনি তোমাদের হৃদয়ে প্রীতির সঞ্চার করালেন। ফলে তোমরা তার অনুগ্রহে পরস্পর ভাই-ভাই হলে গেলে।’

তিনি আরো বলেন, ‘ইয়েমেনে যা হচ্ছে তা মারাত্মক মানবিক বিপর্যয়। উভয় পক্ষের আলোচনায় বসা ছাড়া এ সংকট নিরসনের কোনো সম্ভাবনাই নেই।

তিনি সংঘাতে লিপ্ত ইয়েমেনের উভয়পক্ষের প্রতি আহ্বান জানান যে, তারা যেন সংকট নিরসনে আস্থাভাজন একটি টেবিলে আলোচনায় সম্মত হন।

উল্লেখ্য যে, ২০১৫ সাল থেকে চলছে ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধ। সেই থেকেই মরছে সব বয়সের নিরীহ সাধারণ মানুষ। খাদ্যাভাব ও অনাহারে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে লাখ লাখ ইয়েমেনি। এ গৃহযুদ্ধে জড়িত দুটি পক্ষকে সমর্থন ও নেতৃত্ব দিচ্ছে দুটি দেশ। একটি হলো ইরান। আর অন্যটি হলো সৌদি আরব।

সর্বশেষ গত ৩ দিন আগে ইয়েমেনের সৌদি বিরোধী হুথি বিদ্রোহীরা সৌদি আরবের সবচেয়ে বড় তেল স্থাপনায় হামলা চালায়। ফলে সৌদি আরবের তেল উৎপাদন অর্ধেকেরও নিচে নেমে আসে। আর তা নিয়েই মধ্যপ্রাচ্যে চলছে চরম উত্তেজনা। উভয়পক্ষকে শান্ত করতে ও সংকট নিরসনেই কুরআনের আয়াতের উদ্ধৃতি তুলে ধরেন পুতিন।

এমএমএস/এমকেএইচ