ফরজ নামাজ শেষে বিশ্বনবির দোয়াসমূহ


প্রকাশিত: ০৭:৩৩ এএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৬

আল্লাহ তাআলা মানুষের জন্য দিনে এবং রাতে ৫ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ করে দিয়েছেন। পরকালে আল্লাহ তাআলা মানুষের নিকট থেকে সর্ব প্রথম নামাজের হিসাব নিবেন বলে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হাদিসে ঘোষণাও করেছেন। নামাজ আদায় করার পর আল্লাহ তাআলার জিকির-আজকারের প্রতি মনোযোগী হতে দিক-নির্দেশনা দিয়েছেন বিশ্বনবি। বিশেষ করে প্রতি ওয়াক্তের ফরজ নামাজের পর বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম গুরুত্বপূর্ণ জিকির ও দোয়া পড়তেন। বিশ্বনবির পঠিত দোয়াগুলো তুলে ধরা হলো-

১. সালাম ফেরানোর পরে উচ্চস্বরে ১ বার ‘আল্লাহু আকবার’ বলতেন। হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, ‘আমি তাকবির (আল্লাহু আকবার) দ্বারা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের নামাজের সমাপ্তি সম্পর্কে অবহিত হতাম। (বুখারি ও মুসলিম)

Doa

উচ্চারণ : আল্লাহু আকবার। অর্থ : আল্লাহ সর্বশ্রেষ্ঠ বা আল্লাহ মহান।

২. হজরত সাওবান রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন (নামাজের) সালাম ফেরাতেন, তখন তিনি তিনবার ইস্তিগফার (আস্তাগফিরুল্লাহ) পড়তেন। (বুখারি, মুসলিম ও আবু দাউদ)

Doa

উচ্চারণ : আসতাগফিরুল্লাহ। অর্থ : হে আল্লাহ! আমি তোমার কাছে (গোনাহ থেকে) ক্ষমা প্রার্থনা করছি।

৩.  হজরত সাওবান রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন (নামাজের) সালাম ফেরাতেন, তখন তিনি তিনবার ইস্তিগফার (আস্তাগফিরুল্লাহ) পড়তেন। তারপর ১ বার এ দোয়াটি পড়তেন-

Doa

৪. হজরত মুগিরা ইবনে শু’বা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম প্রত্যেক ফরজ নামাজের পর ১ বার পড়তেন-

Doa

৫. হজরত মুয়াজ রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাকে প্রত্যেক ফরজ নামাজের পর এ দোয়াটি পড়ার জন্য নসিহত করেন-

Doa

ইচ্ছা করলে এ দোয়াটি নামাজের মধ্যে সিজদারত অবস্থায় এবং সালাম ফেরানোর আগে দোয়া মাসুরার সময়ও পড়া যায়।

৬. হজরত আবু উমামা রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি প্রত্যেক ফরজ নামাজের পর ‘আয়াতুল কুরসি’ পাঠ করে-

Doa-Inne

মৃত্যু ছাড়া আর কিছুই তাকে জান্নাতে প্রবেশ করা থেকে বিরত রাখতে পারবে না।’ (আবু দাউদ, নাসাঈ ও মিশকাত)

৭. হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে বর্ণনা করেন যে, তিনি বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি প্রত্যেক নামাজের পর- سُبْحَانَ الله (সুবহানাল্লাহ) ৩৩ বার; اَلْحَمْدُ لِله (আল-হামদুলিল্লাহ) ৩৩ বার; اَللهُ اَكْبَر (আল্লাহু আকবার) ৩৩ বার পড়ে এবং ১০০ বার পূর্ণ করার জন্য ১ বার এ দোয়াটি-

Doa

পড়ে, তার সমস্ত গোনাহ ক্ষমা করে দেয়া হয়, যদিও তা সাগরের ফেনা সমতুল্য হয়। (মুসলিম)

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ওয়াক্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। নামাজের পর বিশ্বনবির নসিহত বাস্তবায়নে উল্লেখিত দোয়াগুলো পড়ে ঘোষিত ফজিলত অর্জনের তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :