মেয়েদের হিজাব না পরাতে মা-দের প্রতি নির্দেশ

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫১ পিএম, ১৮ মে ২০১৯

গত বৃহস্পতিবার (১৬ মে) ফ্রান্সের সংসদ অধিবেশনে স্কুল ছাত্রীদের হিজাব নিষিদ্ধে একটি বিল গ্রহণ করা হয়েছে। সংসদে গ্রহণ করা বিলটিতে হিজাবে অভ্যস্ত মা-দের তাদের মেয়ে সন্তানকে হিজাব পরিয়ে স্কুল পাঠাতে নিষেধ করা হয়।

কনজার্ভেটিভ রিপাবলিকান পার্টির এক সিনেটর স্কুল ছাত্রীদের হিজাব নিষিদ্ধের এ বিলটি উপস্থাপন করে। বিলটিতে ১৮৬ ‘হ্যাঁ’ ভোট পড়ে, ১০০ ‘না’ ভোট পড়ে। আর ভোট প্রদান থেকে বিরত থাকে ১৫৯ সিনেটর।

তবে তা কার্যকরে দেশটির জাতীয় সংসদের নিম্নকক্ষ আনীত বিলটি অনুমোদন করতে হবে।

রিপাবলিকান পার্টির আইন প্রণেতা জ্যাকলিন ইসট্যাচে ব্রিনিও যুক্তি দেন যে, এ বিলটি স্কুলে ছাত্রীদের ধর্মনিরপেক্ষতা বাস্তবায়নের একটি আইনি ফাঁক পূরণ করবে।

এদিকে ফরাসি শিক্ষামন্ত্রী মাইকেল ব্ল্যাঙ্কার যদিও এ বিলের প্রতি শ্রদ্ধা সমর্থন জানিয়েছেন। তবে তিনি বলেছেন, ‘এ বিলটি রাজ্য পরিষদের সিদ্ধান্তে বিপরীত, যা স্কুলের উন্নয়নের ব্যাপক সংকট ও প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘স্কুলে ধর্মীয় প্রতীক বহনে বাবা মা তার সন্তানকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে।’

হিজাব নিষিদ্ধে এ বিলের বিরোধীতা করেছেন ফ্রান্সের মসজিদ ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ মুসাউই। তিনি বলেন, ‘এ বিল মুসলিম স্কুল ছাত্রীদের ধর্মীয় স্বাধীনতা বিরোধী। তিনি ফ্রান্সের জাতীয় সংসদের আইন প্রণেতাদের ধর্মীয় স্বাধীনতার প্রতি সম্মান দেখিয়ে এ বিলটি বাতিলের আহ্বান জানান।’

উল্লেখ্য যে, ইসলামের নির্দেশনা অনুযায়ী মুসলমান মেয়েদের জন্য হিজাব তথা পর্দা ফরজ কাজ ও গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত। বিলটি পাশ হলে এ আইন যেমন একদিকে ধর্মীয় পোশাক পরার স্বাধীনতা হরণ করবে। আবার অন্যদিকে ইসলামের বিধান পালন থেকে বঞ্চিত হবে মুসলিম নারী শিক্ষার্থীরা।

muslimnews.co.uk

এমএমএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :