সেঞ্চুরি না করেও খুশি তামিম!

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪৮ পিএম, ২২ জানুয়ারি ২০১৮

দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন বাংলাদেশের হার্ড হিটার ওপেনার তামিম ইকবাল খান। ত্রিদেশীয় সিরিজের দুটি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। দুই ম্যাচেই দারুণ ব্যাটিং করেছেন তিনি। প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের ছুড়ে দেয়া ১৭১ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে তামিম অপরাজিত ছিলেন ৮৪ রানে। সেদিন রান হাতে না থাকার কারণেই সেঞ্চুরি করা হয়নি মিস্টার খানের। দুর্ভাগ্যই বলা যায় এটাকে।

তাই বলে দ্বিতীয় ম্যাচেও দুর্ভাগ্যের শিকার হবেন! এ ম্যাচেও তো একইভাবে ব্যাট করছিলেন। তামিমের ব্যাটে বিশাল স্কোরের দিকে এগিয়ে চলছিল বাংলাদেশ। ক্যারিয়ারের ১০ম সেঞ্চুরিটার কাছাকাছিও পৌঁছে গিয়েছিলেন তামিম ইকবাল। কিন্তু আকিলা ধনঞ্জয়ার বলে হঠাৎ আউট হয়ে গেলেন তিনি। প্রথমে আবেদনটা ছিল স্ট্যাম্পিংয়ের। আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত দেননি। কিন্তু উইকেটরক্ষক নিরোশান ডিকভেলা রিভিউর আবেদন করলে দেখা গেলো কট-বিহাইন্ড হয়েছেন তিনি। ব্যাটের কানায় লেগে উইকেট রক্ষকের গ্লাভসে গিয়ে জমা পড়ে বল।

আবারও ৮৪ রানে আউট। টানা দুই ম্যাচে একেবারে তীরে এসে তরি ডোবার মতো অবস্থা। এত ভালো ব্যাটিং করার পরও ইনিংসটাকে তিন অঙ্কের ঘরে নিয়ে যেতে পারেননি বাংলাদেশের অভিজ্ঞ এ ওপেনার। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ফিরতি পর্বের ম্যাচের আগেরদিন সংবাদ সম্মেলনে দুই ম্যাচেই সেঞ্চুরি করতে না পারাটা কী ভাগ্য নিজের পক্ষে না থাকা কি না জানতে চাওয়া হয় তামিম ইকবালের কাছে।

তামিম তেমন কিছু মনে করেন না। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে তার কাছে মনে হচ্ছিল সেঞ্চুরিটা এক সময় হয়েই যাবে। যদিও শুরুটা ছিল তার স্লো। তামিম বলেন, ‘দুর্ভাগ্য না। তবে আমার কাছে মনে হচ্ছিল যে দ্বিতীয় ম্যাচে যেভাবে খেলছিলাম... (সেঞ্চুরিটা হয়ে যাবে)। একটা সময় ছিল যে, আমি শুরুই করেছি খুব স্লো।’

সেঞ্চুরি করতে না পারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসেননি এটাই তার কাছে অনেক বড় ব্যাপার। তাতেই তিনি খুশি। তামিম বলেন, ‘আমার কাছে যেটা সবচে ভাল লেগেছে ওই ইনিংসের ব্যাপারে যে, আমি উইকেটটা থ্রো করিনি। আমি সময়ের অপেক্ষায় ছিল, ভালো বলের অপেক্ষায় ছিলাম। যখনই সুযোগ পেয়েছি, তখনই সেটাকে কাজে লাগাচ্ছিলাম। ওভাবে করেই খেলছিলাম। আমি মনে করি, ইনিংসটা ভালোভাবেই এগিয়ে নিচ্ছিলাম। আবার যখন কন্ট্রোলের দরকার ছিল, আমি সেটাও করছিলাম; কিন্তু দুর্ভাগ্য যে, আমি দারুণ একটি বলের মুখোমুখি হয়ে গেলাম। এটা ছিল সত্যিই ভালো একটি বল। কিছু করার নেই। তবে অন্তত একটা জিনিস ভালো, আমি উইকেট থ্রো করে আসিনি। এ কারণে আমি খুশি।’

আইএইচএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :