ইমরুল-মুমিনুল-গুরকিরাতের ব্যাটে জয় গাজী গ্রুপের

ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১৭ পিএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ঢাকার ক্রিকেটে ২৭৩ রানের সংগ্রহ খুব বেশি ছোট নয়। অনেক সময় এই রান নিয়েও বড় জয় পেয়ে যায় কোনো কোনো দল; কিন্তু ২৭৩ রান করেও নিজেদের রক্ষা করতে পারলো না ব্রাদার্স ইউনিয়ন। দক্ষ বোলারের সংকটে শেষ পর্যন্ত গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের কাছে ২ উইকেটে হারতে হয়েছে গোপিবাগের দলটিকে। এই পরাজয়ে ম্লান হয়ে গেলো তরুণ ক্রিকেটারে দেবব্রত দাসের ১১২ রানের দারুণ ইনিংসটি।

প্রিমিয়ার লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে মূলতঃ জয় এনে দিয়েছেন ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক এবং ভারতীয় ক্রিকেটার গুরকিরাত সিং। ইমরুল কায়েস করেন ৬৫ রান, মুমিনুল হক করেছেন ৫৭ এবং গুরকিরাত সিং ছিলেন ৭১ রানে অপরাজিত।

ব্রাদার্স ইউনিয়নের ছুঁড়ে দেয়া ২৭৪ রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই মেহেদী হাসানের উইকেট হারায় গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। ১৩ রানের মাথায় এক উইকেট হারানোর পরও ঘাকড়ে যায়নি গাজী। অপর ওপেনার ও অধিনায়ক ইমরুল কায়েস তিন নম্বরে নামা মুমিনুল হককে নিয়ে দারুণ জুটি গড়েন। তাদের দু’জনের ব্যাটে উঠে আসে ১১১ রানের বিশাল জুটি।

এ সময় ৬৫ রান করে আউট হয়ে যান ইমরুল কায়েস। ৫৭ রান করে বিদায় নেন মুমিনুল হকও। ইমরুল আর মুমিনুলের বিদায়ের কারণে খানিকটা বিপদে পড়ে যায় গাজী গ্রুপ। তবে মিডল অর্ডারে ভারতীয় রিক্রুট গুরকিরাত সিং একপাশ আগলে দাঁড়িয়ে যান। ৮৮ বল খেলে ৭১ রানে অপরাজিত থেকে তিনি গাজীকে জয় উপহার দিয়ে মাঠ ছাড়েন।

জাকের আলি অনিক এবং নাদীফ চৌধুরী দু’জনই করেন ১৫ করে রান। গুরকিরাতের সঙ্গে শেষ পর্যন্ত অপারিজত থাকেন নাঈম হাসান। তিনি করেন ১১ রান। ৫ বল হাতে রেখেই ৮ উইকেটে ২৭৬ রান করে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। ব্রাদার্সের হয়ে খালেদ আহমেদ, মেহেদী হাসান রানা এবং নিহাদুজ্জামান নেন ২টি করে উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন ইফতিখার সাজ্জাদ এবং অলক কাপালি।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে কিছুটা বিপদে পড়লেও দেবব্রত দাসের সেঞ্চুরিতে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৭৩ রান সংগ্রহ করে ব্রাদার্স উইনিয়ন। ১০৯ বলে ৭ বাউন্ডারি এবং ৬ ছক্কায় ১১২ রান করেন দেবব্রত। ৫৪ রান করেন ইয়াসির আলি, ৪৩ রান করেন জুনায়েদ সিদ্দিকি এবং ৪১ রান করেন অলক কাপালি।

আইএইচএস/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :