কেকেআর কি পারবে কোয়ালিফায়ারে টিকে থাকতে?

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৫৭ এএম, ২৩ মে ২০১৮

গ্রুপ পর্বে প্রবল দাপটের সঙ্গে খেলে এসেও প্রথম কোয়ালিফায়ারে চেন্নাই সুপার কিংসের কাছে হেরে যেতে হলো সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে। সাকিব আল হাসানদের পুরোপুরি বিদায় ঘটে যায়নি। ফাইনালে যাওয়ার জন্য অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে তাদের। খেলার সুযোগ রয়েছে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে। ওই ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ কে হবে, সেটা নির্ধারিত হবে আজ। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

ইলিমিনেটর রাউন্ডে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে যে আজ মুখোমুখি হচ্ছে স্বাগতিক কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং রাজস্থান রয়্যালস। এই ম্যাচে যে জিতবে তারাই খেলবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে। পরাজিত দলের বিদায় হয়ে যাবে নিশ্চিত।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের গ্রুপ পর্বের খেলাগুলো এগিয়েছে এক এক সময় এক এক ভঙিতে। কখনো দোর্দণ্ড প্রতাপে, আবার কখনো ম্রিয়মান হয়ে। সর্বশেষ তারা সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে হারিয়েই নিশ্চিত করেছিল প্লে-অফে খেলার। পয়েণ্ট তালিকায় তৃতীয় হয়েই উছেছে শেষ চারে। অন্যদিকে তাদের প্রতিপক্ষ রাজস্থান রয়্যালসকে তাকিয়ে থাকতে হয়েছিল অন্যদের ভাগ্যের দিকে। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স যদি দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের কাছে শেষ ম্যাচে এসে না হারতো, তাহলে রাজস্থানের জায়গায় আজ লিখতে হতো মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

এ ক্ষেত্রে রাজস্থানের ভাগ্যটা নেহাতই ভালো। একে তো পয়েণ্ট টেবিলের তলানীতে থাকা দিল্লির কাছে হারতে হলো মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে। অন্যদিকে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে প্রয়োজনীয় রানরেট তো নিতে পারলোই না, উল্টো হেরে বসেছিল। যে কারণে শেষ পর্যন্ত ভাগ্য খুলেছে রাজস্থানেরই।

তো এমন সৌভাগ্যমণ্ডিত দলের বিপক্ষেই নিজেদের মাঠে আজ খেলতে নামছে কেকেআর। নক আউটের এই ম্যাচে রাজস্থানের বিপক্ষে টিকে থাকতে পারবে তো শাহরুখ খানের দল! গ্রুপ পর্বের ফলাফল বলছে, কেকেআরের সামনে দাঁড়াতেই পারবে না রাজস্থান। কারণ, গ্রুপ পর্বের মুখোমুখি দুই ম্যাচেই কেকেআরের কাছে হেরেছিল আজিঙ্কা রাহানের দল।

তবুও নকআউট বলে কথা। এমন পর্যায়ে যে কোনো দলের মানসিক শক্তি এবং কৌশল বদলে যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে দলীয় তুলনায় আসা প্রয়োজন। দুই ক্যারিবীয় ক্রিকেটার সুনিল নারিন আর আন্দ্রে রাসেল এবারের আইপিএলে যে ফর্মে রয়েছে, তাতে তাদের সামনে যে কারোরই দাঁড়িয়ে থাকা কঠিন। ব্যাটে কিংবা বলে দু’জনই সমান পারফরমার। সঙ্গে নিতিশ রানা, প্রাসিদ কৃষ্ণা, পিযুশ চাওলা, কুলদীপ যাদব এবং সেয়ারলেসদের নিয়ে শক্তিশালী বোলিং লাইনআপ কেকেআরের। সর্বশেষ ম্যাচে হায়দরাবাদের বিপক্ষে তো প্রাসিদ কৃষ্ণা একাই নিয়েছেন ৪ উইকেট। যদিও এই ম্যাচে ইনজুরিতে পড়া মিচেল স্টার্ককে খুব মিস করবে কেকেআর।

রাজস্থানের হাতেও রয়েছে দারুণ সব ব্যাটসম্যান। যদিও রাজস্থানকে ভুগতে হবে দুই ইংলিশ জস বাটলার এবং বেন স্টোকসের অনুপস্থিতির কারণে। বাটলার তো ছিলেন যেন ফর্মের চূড়ায়। টানা ৫টি পঞ্চাশোর্ধ রান করে রেকর্ডের পাতায় নাম লিখে নিয়েছেন তিনি। বেন স্টোকসও ধীরে ধীরে খোলস ছেড়ে বেরিয়ে আসতে শুরু করেছিলেন। কিন্তু জাতীয় দলের ঢাকে ফিরে যেতে হয়েছে তাদের।

তবে সর্বশেষ ম্যাচে রাহুল ত্রিপাথি, আজিঙ্কা রাহানে কিংবা হেনরিক্স ক্লাসেনরা জ্বলে ওঠায় দারুণ এক জয় পেয়েছিল রাজস্থান। হারিয়েছিল বিরাট কোহলির রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুকে। তবে রাজস্থানের জন্য একটাই সমস্যা হতে পারে, ম্যাচটা কেকেআরের নিজেদের মাঠ ইডেন গার্ডেনে। হোম অ্যাডভান্টেজ কেকেআরই পাবে বেশি। তবুও, ইলিমিনেটর রাউন্ড বলে কথা। যে কেউ জ্বলে উঠতে পারে এদিন। কে থাকবে, কে বিদায় নেবে, জানতে সমর্থকদের থাকতে হবে অপেক্ষায়।

আইএইচএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :