অসাধারণ সেঞ্চুরি করে ফাইনালের নায়ক ওয়াটসন

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:২০ এএম, ২৮ মে ২০১৮

ফাইনাল ম্যাচগুলো এমনই। কাউকে নায়ক বানায়, আবার কাউকে বানায় খলনায়ক। আইপিএল ১১তম আসরের ফাইনালকে সম্পূর্ণ একার করে নিলেন চেন্নাই সুপার কিংসের অস্ট্রেলীয় অলরাউন্ডার শেন ওয়াটসন। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিধ্বংসী বোলিংয়ের বিপক্ষে দুর্ধর্ষ ব্যাটিং করলেন ওয়াটসন। শেষ পর্যন্ত জিতলেন তিনিই। ৫৭ বলে অপরাজিত ছিলেন ১১৭ রানের বিশাল ইনিংস খেলে। নিজের দল চেন্নাইকেও উপহার দিলেন ৮ উইকেটের বিশাল জয়।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছে বহু আগে। খেলে যাচ্ছেন কেবল ফ্রাঞ্চইজি ক্রিকেট। যেহেতু বয়সও হয়ে গেছে অনেক। সে কারণে ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন বলে। হয়তো বা এই আইপিএলটা হয়ে থাকতো তার শেষ আইপিএল হিসেবে। অন্য অনেকের মতো যদি পারফরমার হতে না পারতেন।

কিন্তু না, নিজের দল চেন্নাইর জন্য রচনা করেছেন সাফল্যের মহা রাজপথ। শুধুমাত্র ফাইনালে সেঞ্চুরি করেছেন তা নয়। এর আগে গ্রুপ পর্বেও একটি সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে খেলেছিলেন ১০৬ রানের অনবদ্য এক ইনিংস। অর্থ্যাৎ এবারের আইপিএলে মোট ৪ সেঞ্চুরির মধ্যে ২টিই করেছেন ওয়াটসন। এছাড়া ৭৮ রানের একটি ইনিংসও খেলেছেন তিনি।

১৫ ম্যাচে ৫৫৫ রান করে সর্বোচ্চ সংগ্রাহকের তালিকায় ৫ নম্বরে রয়েছেন ওয়াটসন। ২টি সেঞ্চুরির সঙ্গে হাফ সেঞ্চুরি করেছেন ২টি। তবে সব কিছু ছাপিয়ে ফাইনালের মহা নায়ক হয়ে গেলেন ওয়াটসন।

হায়দরাবাদের ছুঁড়ে দেয়া ১৭৯ রানের জবাব দিতে নেমে চেন্নাইকে মুহূর্তের জন্যও ভুগতে দেননি। খেলেছেন মাত্র ৫৭ বল। ৩৩ বলে হাফ সেঞ্চুরি পূরণের পর ৫১ বলে পূরণ করেন সেঞ্চুরি। শেষ পর্যন্ত ৫৭ বল খেলে বাউন্ডারি আর ছক্কার ঝড় বইয়ে দিলেন। ১১টি বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কার মার মারেন ৮টি। ম্যাচ শেষে সেরার পুরস্কারও উঠলো তাই ওয়াটসনের হাতে।

আইএইচএস/এমবিআর

আপনার মতামত লিখুন :