সুপার ফোরের ‘গুরুত্বপূর্ণ’ ম্যাচের দিকে তাকিয়ে মাশরাফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:২২ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

শ্রীলঙ্কাকে ১৩৭ রানে হারিয়ে টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত শুরু করা বাংলাদেশ দলের সামনে সাক্ষাৎ বিভীষিকা হয়ে এসেছে আফগানিস্তান ম্যাচ। অলরাউন্ডার রশিদ খানের কাছে পুরোপুরি পরাস্ত হয়ে বাংলাদেশ দল ম্যাচ হেরেছে ১৩৬ রানের বড় ব্যবধানে। তবে টুর্নামেন্টের পরিস্থিতি বিবেচনায় এত বড় ব্যবধানের হারও বাংলাদেশ দলের সামগ্রিক অবস্থানে তেমন কোনো বাঁধা সৃষ্টি করার কথা নয়।

কেননা আগেই নিশ্চিত হয়েছিল বাংলাদেশের সুপার ফোর, আফগানিস্তান ম্যাচের আগে জানা গিয়েছিল সূচিও। তাই বেশ নির্ভার ও নিশ্চিত থেকেই আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলেছে বাংলাদেশ। তবে জয়ের ধারা হারিয়ে ফেলেছে টাইগাররা। যেকোনো টুর্নামেন্টে এত বড় ব্যবধানে হেরে যাওয়া মানে আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরা। তার উপরে কোন বিশ্রাম ছাড়াই শুক্রবার বিকেলে ভারতের বিপক্ষে খেলতে হবে সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচ।

তাই বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা চান না ভারতের বিপক্ষে সুপার ফোরের ‘গুরুত্বপূর্ণ’ ম্যাচের আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে হারের কোন ছাপ বা গ্লানি গ্রাস করুক তার দলকে। টাইগার অধিনায়ক সবসময়ই বলেন যেকোন টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচটিই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। ফলে ভারতের বিপক্ষে সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচটির গুরুত্বও অন্য সব ম্যাচের চেয়ে বেশি।

জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে না পারার হতাশা রয়েছে মাশরাফিরও। তবে তিনি সেটা নিয়ে ভেবে শুক্রবারের ম্যাচ নিয়েই এগুতে চান। ম্যাচের পরে সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বলেন, ‘আফগানিস্তানের বিপক্ষে হেরে যাওয়া ম্যাচটি নিয়ে সামনে এগুতে গেলে আটকে যেতে হবে, পথ সহজ হবে না। টুর্নামেন্টের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচগুলো শুরু হচ্ছে কালকে (শুক্রবার) থেকে । আজকে (বৃহস্পতিবার) মোমেন্টাম রাখতে পারলে ভালো হতো। এখন যেটা হয়ে গিয়েছে সেটা নিয়ে না ভেবে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে ভাবতে হবে। খুব কম সময় আছে। যতটুকু রিকভারি করা যায় সেটি করে, ইতিবাচকভাবে ভারতের বিপক্ষে নামতে হবে।’

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের ভুলত্রুটিগুলো শোধরানোর সময় নেই সেগুলো নিয়ে কথা বলতেও রাজি নন টাইগার অধিনায়ক। বরং সুপার ফোরের গুরুত্বপূর্ণ ধাপের শুরুতে নিজেদের শক্তির জায়গাগুলো ধরে রেখে মাঠে নামতে চান তিনি।

‘টুর্নামেন্টের গুরুত্বপূর্ণ ধাপ শুরু হচ্ছে কাল (শুক্রবার) থেকে। আফগানিস্তান ম্যাচ নিয়ে বেশি কথা বললে ওরা মানসিকভাবে দুর্বল থাকবে। আশা করি আমরা দ্রুত কামব্যাক করে ভালো কিছু করতে পারব। আফগানিস্তানের বিপক্ষে পারফরম্যান্স হতাশাজনক ছিল। ভারত আরও পেশাদার দল। ছোটখাটো ভুল করলে আরও বড় খেসারত দিতে হবে। যে ভুলগুলো করেছি, সেটা করা যাবে না। ঠিকগুলোর ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে।’

এসময় নিজেদের পিছিয়ে থাকার কারণ নেই জানিয়ে মাশরাফি বলেন, ‘ব্যাকফুটে থাকার মতো কারণ নেই। যদি কালকে (শুক্রবার) ভারতের বিপক্ষে হেরেও যাই, এরপরও আমাদের সামনে সুযোগ থাকবে পরের দুই ম্যাচ জিতলে। আমাদের ইতিবাচক মানসিকতা নিয়েই খেলতে হবে। বিশ্বের এক নম্বর দল ওরা। আমাদের থেকে এগিয়েই আছে। তবে আমরা যদি আমাদের সেরাটা খেলতে পারি, তাহলে অবশ্যই প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচ হবে আশা করি।’

এসএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :