টি-টেন নয়, টি-টোয়েন্টিতে খেলার অনুমতি চেয়েছেন সাকিব

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪৮ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০১৮

আরব আমিরাতে আগামী নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য টি-টেন ক্রিকেট নয়, সাকিব আল হাসান বিসিবির কাছে অনুমতি চেয়েছেন ইউএই টি-টোয়েন্টি এক্স-এ খেলার জন্য। জাগো নিউজে প্রকাশি ব্রেকিং নিউজে জানানো হয়েছিল, টি-টেন লিগ। মূলতঃ সেটা হবে টি-টোয়েন্টি লিগ।

রোববার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ শেষ হওয়ার পরই জাগো নিউজ ব্রেকিং নিউজ প্রকাশ করলো, আরব আমিরাতে গিয়ে প্রাইভেট লিগ খেলার জন্য অনুমতি চেয়েছেন সাকিব আল হাসান। যেখানে তার আঙ্গুলের ইনজুরি নিয়ে উদ্বিগ্ন সারা দেশ। উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় সময় কাটাচ্ছেন ভক্ত-সমর্থকরা। সেখানে, সাকিব দেশের কথা চিন্তা না করে চাইলেন আরব আমিরাতে প্রাইভেট লিগ খেলার অনুমতি। যদিও, জাগো নিউজেই প্রকাশ হয়েছে, সাকিবকে অনুমতি দেয়নি বিসিবি।

আঙ্গুলের ইনজুরি এখনও পুরোপুরি সারেনি। সাকিব আল হাসান অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার আগে নিজেই জানিয়েছিলেন, অন্তত তিন মাস সময় লেগে যাবে তার মাঠে ফিরতে। যদিও অস্ট্রেলিয়া থেকে ফেরার পর বিমান বন্দরেই সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছেন, অস্ত্রোপচার করা লাগবে না। আঙ্গুলে শক্তি ফিরে আসলেই তিনি খেলতে নামতে পারবেন এবং সেটা হয়তো বা এক মাসের মধ্যেও সম্ভব।

এরই মধ্যে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শুরু হয়েছে ওয়ানডে সিরিজ। এরপর টেস্ট সিরিজ। জিম্বাবুয়ের পর বাংলাদেশ সফরে আসবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সুস্থ হয়ে গেলেও সাকিব আল হাসানকে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে সিরিজেও মাঠে নামানো হবে কি হবে না- তা নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করছে বিসিবি। কারণ, সামনেই তো বিশ্বকাপ। সুতরাং, কোনো ঝুঁকি নিতে চায় না এখন আর বিসিবি।

জাগো নিউজে সাকিবের আরব আমিরাতে খেলতে অনুমতি চাওয়ার সংবাদটি প্রকাশ হওয়ার পর তোলপাড় শুরু হয়ে যায় ক্রিকেটাঙ্গনে। দারুণ বিস্ময় জাগে ভক্ত-সমর্থক সবার মাঝে। তবে, জাগো নিউজে প্রকাশিত ব্রেকিং নিউজে লেখা হয়েছিল, সাকিব আগামী নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য টি-টেন লিগে খেলার জন্য অনুমতি চেয়েছেন। বিষয়টা তেমন নয়, তিনি অনুমতি চেয়েছেন আগামী ডিসেম্বরে আরব আমিরাতে অনুষ্টিতব্য ইউএই টি-টোয়েন্টি এক্স-এ খেলার জন্য। যেটা শুরু হবে ১৯ ডিসেম্বর এবং শেষ হবে ১১ জানুয়ারি।

তবে আজ আবার সাকিবের অনুমতি পাওয়া না পাওয়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন বিসিবি মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তিনি প্রথমে নিশ্চিত করেন, সাকিবের পক্ষ থেকে এনওসি’র (নো অবজেকশন সার্টিফিকেট) জন্য আবেদন করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে আজ কিংবা কালের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন জালাল ইউনুস।

তিনি বলেন, ‘আরব আমিরাতে ফ্রাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট খেলার জন্য সে (সাকিব) আমাদের কাছে অ্যাপ্রোভালের জন্য এনওসি পাঠিয়েছে। আমরা তাকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবো একদিন কিংবা দুদিনের মধ্যে।’ জাগো নিউজে আগেরদিনই প্রকাশ হয়ে গেছে, বিসিবি সাকিবকে সরাসরি ‘না’ করে দিয়েছে। কারণ, এ মুহূর্তে তাকে অন্য কোথাও খেলার অনুমতি বিসিবি দেবে না।

আইএইচএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :