বৃষ্টিতে ২২ ওভার আগেই শেষ প্রথম দিনের খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৪৩ পিএম, ১৪ আগস্ট ২০১৯

অভিজ্ঞ রস টেলরই সবচেয়ে বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছেন শ্রীলঙ্কার সামনে। না হয়, একা এক আকিলা ধনঞ্জয়া যেভাবে অফব্রেক ঘূর্ণি দিয়ে চেপে ধরেছিল, তাতে প্রথম দিনের খেলা ঠিকমত হতে পারলে বড় ধরনের ধাক্কাই খেতে হতো নিউজিল্যান্ডকে। একাই ৫ উইকেট নিলেন তিনি। কিউইরাও হারিয়েছে ৫ উইকেট।

তবে, গলে বৃষ্টির কারণে মাত্র ৬৮ ওভার হওয়ার খেলা বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন দুই আম্পায়ার মাইকেল গফ এবং রিচার্ড ইলিংওর্থ। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টির অবস্থা এতটাই ভয়াবহ দাঁড়ালো যে, ম্যাচ রেফারি অ্যান্ডি পাইক্রফট দিনের বাকি খেলা সেখানেই বাতিল বলে দিতে বাধ্য হলেন।

অর্থ্যাৎ, খেলা হলো কেবল ৬৮ ওভার। দিনের খেলা তখনও বাকি ছিল ২২ ওভার। এই ৬৮ ওভারে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ৫ উইকেট হারিয়ে ২০৩ রান। ১৩১ বলে ৮৬ রান নিয়ে একা রস টেলরই যা প্রতিরোধ গড়ে দাঁড়িয়ে আছেন লঙ্কান বোলারদের সামনে। তার সংগে অপরাজিত রয়েছেন মিচেল সান্তনার, ৮ রান করে।

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করতে পারলে ভারতকে পেছনে ফেলে শীর্ষে উঠে যাবে নিউজিল্যান্ড- এই প্রত্যাশা নিয়েই গলে আজ স্বাগতিকদের মুখোমুখি হয়েছে কিউইরা। স্পিন সাম্রাজ্য বলা চলে এই গলকে। যেখানে উইকেটের বন্যা বইয়ে দিতেন মুত্তিয়া মুরালিধরনরা।

NZ-SRL-1.jpg

সেই মাঠেই আজ ঘূর্ণিঝড় বইয়ে দিলেন আরেকজন অফব্রেক বোলার, আকিলা ধনঞ্জয়া। তার অফব্রেক ঘূর্ণিতে শুরুতেই রীতিমত চোখে শর্ষেফুল দেখতে শুরু করেছিল সফরকারী নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা। শুধুমাত্র আকিলা ধনঞ্জয়ার বোলিংয়ের সামনেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে নিউজিল্যান্ড। ১৭৯ রানের মাথায় তারা হারিয়েছে ৫টি উইকেট।

টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। ৬৪ রানের জুটি গড়েন দুই ওপেনার জিত রাভাল এবং টম ল্যাথাম। ২৭তম ওভারের তৃতীয় বলে টম ল্যাথামকে উইকেটের পেছনে ডিকভেলার হাতে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন ধনঞ্জয়া। ৩০ রানে আউট হন ল্যাথাম।

দুই বল বিরতি দিয়ে একই ওভারে ধনঞ্জয়া তুলে নেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসের উইকেটও। শর্ট মিডউকেটে দিমুথ করুনারত্নে হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান কেন উইলিয়ামসন। ৩ ওভার বিরতি দিয়ে, ৩১তম ওভারের দ্বিতীয় বলে দলীয় ৭১ রানের মাথায় জিত রাভালকেও তুলে নেন ধনঞ্জয়া। ৮৩ বলে ৩৩ রান করে ধনঞ্জয়া ডি সিলভার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন জিত রাভাল।

এরপরই প্রতিরোধ গড়ে দাঁড়ান দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান রস টেলর এবং হেনরি নিকোলস। দু’জনের ব্যাটে গড়ে ওঠে বরাবর ১০০ রানের জুটি। ১৭১ রানের মাথায় আবারও আকিলা ধনঞ্জয়া আঘাত হানেন। এবার ৭৮ বলে ৪২ রান করে ধনঞ্জয়ার বলে এলবিডব্লিউর শিকার হন নিকোলস। বিজে ওয়াটলিং মাঠে নেমে ৫ বল খেলতে পারলেন কেবল। ১ রান করেই আকিলার বলে এলবিডব্লিউর শিকার হন।

আইএইচএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :