কন্ডিশনিং ক্যাম্পের দল ঘোষণা হতে পারে আজ!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১২:১৬ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০১৯

প্রথমে শোনা গেল ২০ তারিখ, পরে ১৮ আগস্ট চূড়ান্ত হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী রোববার থেকেই শুরু আফগানিস্তানের সঙ্গে এক ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ও তিন জাতি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের প্রাথমিক প্রস্তুতি। জাগো নিউজের পাঠকদের আগেই জানা, সেই প্রস্তুতি শুরুর অংশ হিসেবে সপ্তাহ খানেকের এক কন্ডিশনিং ক্যাম্প হবে। তাতে ৩৬ জন ক্রিকেটারকে ডাকা হবে।

কিন্তু শেষ খবর হলো, আজ মানে এখন পর্যন্ত সেই প্রাথমিক খেলোয়াড় তালিকা মিডিয়ায় আসেনি। তবে সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর, নির্বাচকরা ঈদের ছুটির আগেই ক্রিকেটার বাছাই ও মনোনয়নের কাজ সেরে বোর্ডে জমা দিয়েছেন। কিন্তু ঈদের ছুটির কারণে তা প্রকাশ করা হয়নি।

ধারণা করা হচ্ছে, আগামীকাল ১৬ আগস্ট শুক্রবার হয়তো সেই ৩৬ ক্রিকেটারের নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করবে বিসিবি। এদিকে শেরে বাংলায় হালকা গুঞ্জন আজ দুপুরের পর বিকেল-সন্ধ্যায় নাগাদও ঐ তালিকা প্রকাশিত হয়ে যেতে পারে। সেটা হতে পারে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের মুখ থেকেও।

বলার অপেক্ষা রাখে না আজ দুপুরে জাতির জনক, বাংলাদেশের স্থপতি-রূপকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাতে মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে আসবেন বিসিবি প্রধান। সেখানে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সারাদেশের মত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও বঙ্গবন্ধুর আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো এবং তাকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করার উদ্যোগ নিয়েছে।

ঐ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গিয়ে বোর্ড সভাপতি হয়তো মিডিয়ার সাথে আলাপে প্রাথমিক দলের ঘোষণা দিয়ে ফেলতে পারেন। আগেই জানা, বাংলাদেশের সবশেষ টেস্ট স্কোয়াড, টি-টোয়েন্টি দলের প্রায় সবাই থাকবে ঐ কন্ডিশনিং ক্যাম্পে। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জাগো নিউজকে প্রায় দুই সপ্তাহ আগে জানিয়েছেন এর বাইরে জাতীয় ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকেও ৩৬ জনে রাখা হয়েছে।

প্রাথমিক দলে হাই পারফরমেন্স ইউনিটের বেশ কজন সম্ভাবনাময় ও ফর্মে থাকা তরুণের থাকার কথাও জানিয়েছিলেন নান্নু। তার কথায় পরিষ্কার আভাস, পরিপাটি ব্যাটিংশৈলির সাইফ হাসান, ড্যাশিং ওপেনার মোহাম্মদ নাইম শেখ, উদ্যমী অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন ধ্রুব, ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত, মিডল অর্ডার ইয়াসির আলি রাব্বি, পেসার শরিফুল ইসলাম ও ইয়াসির মিশুর ক্যাম্পে ডাক পাওয়ার সম্ভাবনা প্রচুর।

এদিকে বিসিবি সভাপতি আজ জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে শেরে বাংলায় মিডিয়ার সামনে কথা বলতে আসলে জাতীয় দলের হেড কোচ নিয়োগ সম্পর্কেও একটা ধারণা পাওয়ার সম্ভাবনা যথেষ্ঠ। ঐ কার্যক্রম আসলে কোন পর্যায়ে আছে, বিসিবি সভাপতি সে সম্পর্কেও হয়তো প্রচার মাধ্যমকে একটা ধারণা দিতে পারেন, এমনটা ভাবা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, শুরুতে বোর্ড থেকে তিন জনের কথা বলা হলেও পরে জানা গেছে বিসিবির হাতে জনা চারেক কোচের নাম আছে। তাদের সঙ্গে কথাবার্তাও চলছে। এর মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ডোমিঙ্গো ঈদের আগে ইন্টারভিউ দিয়ে গেছেন। এখন জোরেশোরে নিউজিল্যান্ডের কোচ মাইক হেসনের নাম শোনা যাচ্ছে।

গতকাল (বুধবার) পড়ন্ত বিকেলে আরও দুজন কোচের সাথে ভিডিও কনফারেন্সও হয়েছে বোর্ড কর্তাদের। এর মধ্যে মাইক হেসন ভারতের সম্ভাব্য হেড কোচের তালিকায়ও আছেন। আগামী ১৬ আগস্ট মুম্বাইতে এ নিউজিল্যান্ড কোচের ইন্টারভিউ। ভারতের সম্ভাব্য কোচের তালিকায় তার সঙ্গে বর্তমান কোচ রবি শাস্ত্রী, অস্ট্রেলিয়ার টম মুডি, ভারতের রবিন সিং, লালচাঁদ রাজপুত আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফিল সিমন্সের নামও আছে।

এদের মধ্যে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি পছন্দ রবি শাস্ত্রী। এখন বিরাটের পছন্দকে মানদন্ড ধরা হলে হয়ত রবি শাস্ত্রীই থাকবেন ভারতের হেড কোচ হয়ে। আর তা না হলে মাইক হেসনের ভারতের পরবর্তী কোচ হবার সম্ভাবনাই বেশি। এজন্য একটু অপেক্ষায় থাকতে হবে। আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যে হয়ত এ কৌতূহলি প্রশ্নের জবাব মিলবে।

এসএএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :