অবসর ভেঙে লঙ্কান লিগে খেলবেন ইরফান পাঠান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:০৬ এএম, ০১ নভেম্বর ২০২০

সবশেষ স্বীকৃত ক্রিকেট খেলেছেন গতবছরের ফেব্রুয়ারিতে। পরে খেলেছেন দুইটি প্রদর্শনীমূলক ম্যাচ। আর চলতি বছরের জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই বিদায় জানিয়েছেন পেশাদার ক্রিকেটকে। এবার সেই অবসর ভেঙে শ্রীলঙ্কার টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ (এলপিএল) ক্রিকেটে খেলবেন ভারতের সাবেক অলরাউন্ডার ইরফান পাঠান।

আগামী ২১ নভেম্বর থেকে শুরু হতে চলেছে এলপিএলের প্রথম আসর। পাঁচ দলের অংশগ্রহণে ১৩ ডিসেম্বর পর্দা নামবে এই টুর্নামেন্টের। যেখানে তারকাখচিত দল ক্যান্ডি তাস্কার্সের হয়ে খেলবেন ইরফান পাঠান। সতীর্থ হিসেবে তিনি পাবেন ক্রিস গেইল, ওয়াহাব রিয়াজ, লিয়াম প্লাংকেট, কুশল পেরেরার মতো খেলোয়াড়দের।

মাত্র ৩৬ বছর বয়সেই পেশাদার ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে হইচই ফেলে দিয়েছিলেন ইরফান। তবে দশ মাসের বেশি সময় নিজের সিদ্ধান্তে অটল থাকতে পারলেন না এ বাঁহাতি পেস বোলিং অলরাউন্ডার। বর্তমানে আইপিএলে ধারাভাষ্যের কাজে আরব আমিরাতে অবস্থান করছেন তিনি। আইপিএল শেষ করেই চলে যাবেন শ্রীলঙ্কায়।

ক্রিকইনফোকে ইরফান বলেছেন, ‘আমি খেলার জন্য মুখিয়ে আছি। হ্যাঁ, আমি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছিলাম। তবে আমি এখনও বিশ্বজুড়ে ক্রিকেটে খেলতে পারব। আশা করছি এলপিএল উপভোগ্য হবে এবং মাঠের লড়াইয়ের স্বাদ আস্বাদন করতে পারব। যা গত দুই বছর ধরে আমি পারছি না। আমি মনে করি, এখনও খেলার মতো অনেক কিছুই আছে আমার ভেতরে।’

এলপিএলে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর স্কোয়াড

জাফনা স্ট্যালিয়নস
থিসারা পেরেরা, ভানিন্দু হাসারাঙ্গা, শোয়েব মালিক, উসমান শিনওয়ারি, আভিশকা ফার্নান্দো, ধনঞ্জয় ডি সিলভা, সুরাঙ্গা লাকমল, বিনুরা ফার্নান্দো, আসিফ আলি, মিনোদ ভানুকা, চাতুরাঙ্গা ডি সিলভা, মহেশ থিকশানা, চরিথ আসালাঙ্কা, নুভিনিদু ফার্নান্দো, কানাগারাত্নাম কপিলরাজ, থাইভেনদিরাম দিনোশান এবং ইয়াকান্থ ইয়াশকান্ত।

ডাম্বুলা হকস
দাসুন শানাকা, কার্লোস ব্রাথওয়েট, সামিত প্যাটেল, নিরোশান ডিকভেলা (উইকেটরক্ষক), লাহিরু কুমারা, ওশাদা ফার্নান্দো, কাসুন রাজিথা, পল স্টারলিং, লাহিরু মাদুশঙ্কা, উপুল থারাঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো পেরেরা, রমেশ মেন্ডিস, পুলিনা থারাঙ্গা, আশেন বান্দারা, দিলশান মাদুশঙ্কা, শচীন্দু কলমবাগে।

ক্যান্ডি তাস্কার্স
ক্রিস গেইল, কুশল পেরেরা, ইরফান পাঠান, লিয়াম প্লাংকেট, ওয়াহাব রিয়াজ, কুশল মেন্ডিস, নুয়ান প্রদীপ, সেকুগে প্রসন্ন, আসেলা গুনারাত্নে, নবীন উল হক, কামিন্দু মেন্ডিস, দিলরুয়ান পেরেরা, প্রিয়ামল পেরেরা, কাভিশকা আনজুলা, লাসিথ এম্বুলদেনিয়া, লাহিরু সামারাকুন, নিশান ফার্নান্দো, চামিকা এডিরিসিংহে এবং ইশান জয়ারত্নে।

কলম্বো কিংস
অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ, মানপ্রিত সিং গনি, ইসুরু উদানা, দিনেশ চান্দিমাল, আমিলা আপোনসো, রবিন্দরপল সিং, আশান প্রিয়ঞ্জন, দুশমন্থ চামিরা, জেফরে ভেন্ডারসাই, থিকশিলা ডি সিলভা, থারিন্দু কুশল, লাহিরু উদারা, হিমেশ রামানায়েক, কালানা পেরেরা, থারিন্দু রত্নায়েকে এবং নাভোদ পারানাভিথানা।

গল গ্ল্যাডিয়েটরস
লাসিথ মালিঙ্গা, শহিদ আফ্রিদি, কলিন ইনগ্রাম, মোহাম্মদ আমির, হযরতউল্লাহ জাজাই, দানুশকা গুনাথিলাকা, ভানুকা রাজাপাকশে, আকিলা ধনঞ্জয়, মিলিন্দা সিরিওয়ার্দেনে, সরফরাজ আহমেদ, আজম খান, লাকশান সান্দাকান, শেহান জয়াসুরিয়া, আসিথা ফার্নান্দো, নুয়ান থুসারা, মোহাম্মদ সিরাজ, ধনঞ্জয় লাকশান, চানাকা রুয়ানসিরি এবং সাহান আরাচ্চি।

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]