কোহলির চোখে ‘খুব ভালো পিচ’, মানতে নারাজ ইংলিশরা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:২১ এএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১

পাঁচদিনের ম্যাচ শেষ হয়ে গেছে পৌনে দুই দিনে, সাড়ে চারশ ওভারের খেলায় ফল এসেছে মাত্র ১৪০.২ ওভারেই। নানান আয়োজনে শুরু হওয়া বিশ্বের সবচেয়ে ক্রিকেট স্টেডিয়ামের প্রথম ম্যাচটি ফলের বিচারে ভারতের জন্য ইতিবাচক হলেও, দর্শক বিনোদন দিতে পারেনি তেমনভাবে।

এর বড় কারণ ছিল ম্যাচের উইকেট। যেখানে প্রথম দিনের প্রথম ঘণ্টা থেকেই একপ্রান্তে শুরু হয়ে যায় বড় বড় সব টার্ন। নরম মাটির উইকেটে সেসব টার্নের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারেনি দুই দলের কেউই। ইংল্যান্ড নিজেদের দুই ইনিংসে অলআউট হয়েছে ১১২ ও ৮১ রানে, ভারত প্রথম ইনিংসে থেমেছে মাত্র ১৪৫ রানে।

তবে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে আবার কোনো উইকেট হারায়নি ভারত। তবে প্রথম ইনিংসে তাড়া কুপোকাত হয়েছিল খণ্ডকালীন স্পিনার জো রুটের বলে। যিনি মাত্র ৮ রানে নিয়েছিলেন ৫টি উইকেট। মাত্র ৩১ রানে নিজেদের শেষ ৭ উইকেট হারিয়েছিল ভারত।

তবু দশ উইকেটের সহজ জয় পাওয়ার পর এ উইকেটকে খুব ভালো বলে দিয়েছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। অন্যদিকে রুট উত্তর দিয়েছেন খানিক ঘুরিয়ে। এছাড়া সাবেক ক্রিকেটারদের মধ্যে ভারতীয়রা বলছেন পিচ ঠিক আছে আর ইংলিশরা বলছেন এসব পিচে খেলার মানে নেই।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে উইকেটের প্রসঙ্গ আসতে কোহলি বলেন, ‘এটা ব্যাটিংয়ের জন্য খুব ভালো উইকেট ছিল। বিশেষ করে প্রথম ইনিংসে। আমার মনে হয়েছে বল খুব ভালো ব্যাটে আসছে। মাঝেমধ্যে দুই-একটা বল টার্ন করেছে।’

কোহলির এমন মন্তব্যের পেছনে ঢাল হিসেবে দাঁড় করানোর শক্ত তথ্যও অবশ্য আছে। ম্যাচে যে ৩০ উইকেট পড়েছে, তার ২১টিই ছিল সোজা ডেলিভারি অর্থাৎ টার্ন না করা বলে। তাই মূল দায় ব্যাটসম্যানদেরই বলছেন কোহলি, ‘আমি বলব যে, দুই দলই গড়পড়তার চেয়ে খারাপ ব্যাটিং করেছে। আমাদের বোলাররা বেশি কার্যকর ছিল। তাই ফল আমাদের পক্ষে এসেছে।’

স্বাভাবিকভাবেই কোহলির সঙ্গে একমত হননি ইংল্যান্ডের কেউ। পিচের বিষয়ে ম্যাচ পরবর্তী পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে খানিক হেয়ালি করে রুটের মন্তব্য, ‘আমি ৫ উইকেট নিয়েছি। এতেই হয়তো বোঝা যেতে পারে, পিচটা আসলে কেমন ছিল?’

তবে এতটা ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বলার পথ ধরেননি সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক। তার মতে, এই পিচে ব্যাটসম্যানদের কাজ একটু বেশিই কঠিন ছিল। কুকের ভাষ্য, ‘আমরা একটি পরিসংখ্যান দেখেছি যে, ভারতের অন্যান্য যেকোন পিচের চেয়ে এখানে বল বেশি টার্ন করেছে।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘তবে এর সঙ্গে এটাও মানতে হবে যে, অনেকগুলো বল পিচ করার পর সোজা গিয়েছে। যার মানে দাঁড়ায়, যখন বল টার্ন করেছে, তখন অনেক বেশিই টার্ন করেছে। হাইলাইটস দেখলে বুঝবেন কিছু বল স্কিডও করেছে। এভাবে পরিকল্পনা করা যায় না। কারণ একই জায়গার বল অনেক বেশি টার্ন করেছে।’

প্রায় একই মত আরেক ইংলিশ অধিনায়ক অ্যান্ড্রু স্ট্রাউসের। তার মতে, উইকেটে স্পিনারদের জন্য একটু বেশিই সুবিধা ছিল। স্ট্রাউস বলেছেন, ‘আপনি জো রুটের দিকে দেখেন। সবাই জানে, রুট স্পিন খুব ভাল খেলে। এমনকি সে দারুণ ফর্মেও আছে। সে কত করল? ১৯ রানে আউট। এ রান করার পথে কয়েকবার বেঁচেও গেছে। আমি কুকের সঙ্গে একমত। এখানে স্পিনারদের জন্য অতিরিক্ত সুবিধা ছিল।’

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]