হেরে লিগ শেষ করলো শেখ জামাল

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:১৮ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০১৮
হেরে লিগ শেষ করলো শেখ জামাল

খেলা চলাকালীনই প্রেসবক্সে ছুটে এলেন রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটির এক সাবেক কর্মকর্তা। মাঠে তখন ফরাশগঞ্জের বিরুদ্ধে ৩-০ গোলে পিছিয়ে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। রহমতগঞ্জের ওই সাবেক কর্মকর্তার দাবি-‘শেখ জামাল ইচ্ছে করে হারছে। আমরা বাফুফের কাছে লিখিত অভিযোগ করবো।’

বৃস্পতিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ফরাশগঞ্জ ৩-১ গোলে হারিয়েছে আগেই রানার্সআপ নিশ্চিত হওয়া শেখ জামালকে। ম্যাচের পর অনেকেরই প্রশ্ন-ফরাশগঞ্জ কী জিতলো? নাকি জামাল ইচ্ছে করে হেরে গেলো? প্রথম পর্বে এই ফরাশগঞ্জকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল শেখ জামাল।

অবনমনের বেশি ঝুঁকিতে থাকা ফরাশগঞ্জের জন্য শেষ ম্যাচের ৩ পয়েন্ট মহামূল্যবান। তাদের এ জয়ে এখন নেমে যাওয়ার শঙ্কা বেড়ে গেলো পুরনো ঢাকার আরেক ক্লাব রহমতঞ্জের। তাই তো এ ম্যাচের ফলাফল নিয়ে বেশি প্রশ্ন তাদের। ম্যাচে শেখ জামালের গোলগুলো খাওয়ার ধরণ দেখে যে কারো মনেই প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক।

ম্যাচের পর প্রশ্নবানে জর্জরিত হলেন শেখ জামালের কোচ মাহবুব হোসের রক্সিও। লিগের মাঝপথে জামালের দায়িত্ব পাওয়া রক্সির হেরে যাওয়ার ব্যাখ্যা, ‘আমাদের দল কার্ডে জর্জরিত। রাফায়েলের কুঁচকীতে টান, আমিতো একাদশই বানাতে পারছিলাম না। তাছাড়া রানার্সআপ হয়ে যাওয়ায় খেলোয়াড়দের মধ্যেও একটু ঢিলেমি ছিল। আমাদের তো মাচ ছাড়ার প্রশ্নই উঠে না।’

৩ পয়েন্ট পেয়ে রহমতগঞ্জকে তলানিতে ঠেলে দিলো ফরাশগঞ্জ। অবনমন ঠেকাতে হলে শনিবার সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে জয়ের বিকল্প নেই কামাল বাবুর দলের। ১৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ১১ নম্বরে ফরাশগঞ্জ, সবার নিচে থাকা রহমতগঞ্জের পয়েন্ট ১৫। প্রশ্নবোধক জয়ের পরও ফরাশগঞ্জ পুরোপুরি শঙ্কামুক্ত নয়। রহমতগঞ্জ ও বিজেএমসি শেষ ম্যাচ জিতলে ফরাশগঞ্জকে হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে প্লে-অফ খেলতে হবে মুক্তিযোদ্ধার সঙ্গে।

আরআই/এমএমআর/জেআইএম