আমাদের এখনো ৭০ ভাগ কাজ বাকি : জামাল ভূঁইয়া

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৪০ পিএম, ০৮ জুন ২০১৯

ভিয়েনতিয়ানে লাওসকে হারানোর পর দলের অন্যতম খেলোয়াড় বিপলু আহমেদ বলেছিলেন, তারা ৭৫ ভাগ কাজ শেষ করেছেন। বাকি ২৫ ভাগ শেষ করতে চান ঢাকায়। কিন্তু দলীয় অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া মনে করেন, তাদের কাজ শেষ হয়েছে মাত্র ৩০ ভাগ। এখনো ৭০ ভাগ তাদের করতে হবে এবং সেটি ঘরের মাঠে। শনিবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ফিরতি ম্যাচের প্রস্তুতিতে নামার আগে বাংলাদেশ অধিনায়ক কথাগুলো বলেছেন।

বাস্তবতা বোঝেন ডেনমার্ক প্রবাসী এ ফুটবলার। তিনি জানেন, বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম পর্বের হার্ডলস পার হতে না পারলে বছর তিনেক হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকতে হবে। কোনো ম্যাচ খেলার সুযোগ হবে না ফিফা-এএফসির।

‘এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ আমাদের জন্য। এ ম্যাচ জিততে না পারলে আগামী দুই/তিন বছর কোনো ম্যাচ খেলতে পারব না। প্রথম ম্যাচ জিতেছি বলেই আমরা নিরাপদ নই। ৩০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। ফিরতি ম্যাচে বাকি ৭০ ভাগ শেষ করতে হবে। পরের ম্যাচের জন্য আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে’-বলেছেন জামাল ভূঁইয়া।

ভিয়েনতিয়ানের ম্যাচে প্রথমার্ধে খারাপ খেলেছে বাংলাদেশ। কারণ হিসেবে তিনি খেলোয়াড়দের নার্ভাসনেসের কথা বলেছেন ‘দলে বেশ কয়কজন নতুন খেলোয়াড় আছেন। তাই কিছুটা নার্ভাস ছিলেন তারা। তবে আমরা জিতেছি এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা ভালো খেলিনি প্রথমার্ধে। দ্বিতীয়ার্ধে মোটামুটি ভালো খেলছি। গোল পেয়েছি। সেটাই সবচেয়ে বড় কথা।’

ফিরতি ম্যাচে ড্র হলেই চলবে বাংলাদেশের। কিন্তু কোচ জেমি ডে’র মতো অধিনায়ক জামালও ড্রয়ের কথা মাথায় আনছেন না। তিনি জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামার কথা বলেছেন, ‘ ফিরতি ম্যাচে ড্রয়ের লক্ষ্য নয়। মানুষ চায় আমরা জিতি। আমরাও চাই জিতি। যদিও ড্র প্রয়োজন কিন্তু আমরা জয়ের জন্য খেলতে চাই।’

ম্যাচটি সামনে রেখে থাইল্যান্ডে ১০ দিনের যে কন্ডিশনিং ক্যাম্প করেছে দল তাকে ফলপ্রসু হিসেবে দেখছেন অধিনায়ক, ‘থাইল্যান্ডের ক্যাম্প ভালো হয়েছে। এগুলোর দরকার ছিল। তারপরও আসল ম্যাচের প্রথম দিকে আমাদের কম্বিনেশন ঠিক ছিল না। দ্বিতীয়ার্ধে আমরা সেগুলো রিকভার করেছি।’

আরআই/এমএমআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :