নেপালের ক্লাবকে আবার হারাতে চায় আবাহনী

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৫৪ পিএম, ১৮ জুন ২০১৯

চার ম্যাচে সংগ্রহ ৭ পয়েন্ট। আবাহনীর বাকি এখনো দুই খেলা। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ৬ বারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনীর এএফসি কাপের পরের রাউন্ডে ওঠার সম্ভাবনা এখনো আছে। বুধবার ঘরের মাঠে আবাহনী তাদের পঞ্চম ম্যাচ খেলবে নেপাল চ্যাম্পিয়ন মানাং মার্সিংয়াদি ক্লাবের বিপক্ষে।

কাঠমান্ডুতে যে দলটিকে হারিয়ে এএফসি কাপ মিশন শুরু করেছিল ফেডারেশন কাপ চ্যাম্পিয়ন আবাহনী। এবার ঘরের মাঠেও হিমালয়ের দেশটির ক্লাবকে হারাতে চায় আকাশী-হলুদরা। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা পৌনে ৬টায়।

‘ই’ গ্রুপে আবাহনীর সমান ৭ পয়েন্ট ভারতের ক্লাব চেন্নাইন এফসিরও। বুধবার তারা খেলবে নিজ দেশের ক্লাব মিনেরভা পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে। পাঞ্জাবের দলটি এখনো পয়েন্টের মুখ দেখেনি। দেশীয় প্রতিপক্ষের সঙ্গে তাদের পেরে ওঠা কঠিন। নেপালের ক্লাবের বিরুদ্ধে আবাহনীর ম্যাচটি এ কারণেই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। জিততে হবে এবং গোল বাড়াতে হবে। তানা হলে গোলের দুঃখ নিয়ে আরেকটি এএফসি কাপ মিশন শেষ করতে হবে বাংলাদেশ জায়ান্টদের।

মঙ্গলবার বাফুফে ভবনে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে আবাহনীর পর্তুগিজ কোচ মারিও লেমস বলেছেন, ‘যেহেতু তাদের প্রধান প্রতিপক্ষ চেন্নাইন এফসি পয়েন্টে তাদের সমান এবং গোলগড়ে টেবিলের শীর্ষে রয়েছে তাই এ ম্যাচটি তাদের জিততেই হবে নেপালের ক্লাবটির বিরুদ্ধে। এটা আমাদের জন্য বড় ম্যাচ। এ ম্যাচ হারা যাবে না, ড্র করা যাবে না। এ ম্যাচ জিততেই হবে। জিতলে আমরা খুব ভালো পজিশনে চলে যাবো’- বলেছেন আবাহনীর কোচ।

আবাহনীর স্ট্রাইকার নাবিব নেওয়াজ জীবন বলেছেন, ‘প্রতিপক্ষ সম্পর্কে আমাদের ভালো ধারণা আছে। কারণ, আমরা একটি ম্যাচ খেলেছি তাদের বিরুদ্ধে। আমার বিশ্বাস নেপালের দলটির বিরুদ্ধে ভালো খেলেই আমরা জিততে পারবো।’

আরআই/আইএইচএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :