চারদিন আগেই ঢাকায় আসবে উত্তর কোরিয়ার ক্লাব

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৫৪ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০১৯

আবাহনীর বিরুদ্ধে এএফসি কাপের ইন্টার জোন প্লে-অফ সেমিফাইনাল খেলতে কিম জং উনের দেশ উত্তর কোরিয়ার এপ্রিল টোয়েন্টি ফাইভ স্পোর্টস ক্লাব চারদিন আগে ১৭ আগস্ট ঢাকায় এসে পৌঁছে যাবে।

আগামী ২১ আগস্ট সন্ধ্যা পৌনে ৭টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে দুই দেশের দুই জায়ান্ট। দুই দলের ফিরতি পর্বের ম্যাচ ২৮ আগস্ট উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ং ইয়ংয়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

কোরিয়ান দলটির চারদিন আগে আসার প্রধান কারণ ফ্লাইট সিডিউল। আবাহনী ক্লাব সূত্রে জানা গেছে, উত্তর কোরিয়া থেকে ঢাকায় আসার ফ্লাইট সমস্যার কারণেই দেশটির ক্লাবকে আগেভাগে চলে আসতে হচ্ছে। হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে ইন্টার জোনাল সেমিফাইনাল বিজয়ী দলটি জোনাল ফাইনাল খেলবে।

ঈদের ছুটি কাটিয়ে আবাহনীর ফুটবলাররা পুনরায় অনুশীলনে নেমেছে বুধবার থেকে। কয়েকদিনের বৃষ্টিতে মাঠ ভিজে যাওয়ায় অনুশীলনে সমস্যা হলেও আবাহনীর ফুটবলাররা মানিয়ে নিয়েই সব কিছু করছে। পর্তুগিজ কোচ মারিও লেমস উত্তর কোরিয়ার আক্রমণ ঠেকাতে দলের রক্ষণভাগকে প্রস্তুত করছেন। কারণ, কোরিয়ান ক্লাবটি আবাহনীর চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী।

তারওপর লেমসের হাতে নেই লিগে রক্ষণদুর্গ সামাল দেয়া আফগান ফুটবলার মাসিহ সাইঘানি। রক্ষণভাগ সামলানোর পাশাপাশি এই আফগান আক্রমণভাগেও দারুণ খেলেছেন। এএফসি কাপ ফুটবলের প্রথম পর্বে দুটি ম্যাচ জিতিয়েছেন গোল করে। তার দুই গোলেই মূলতঃ আবাহনী এএফসি কাপের ইন্টার জোনাল সেমিফাইনালে। আবাহনী এই ফুটবলারকের রাখতে পারেনি। চলে গেছেন চেন্নাইন এফসিতে।

কোচ লেমস এখন নতুন দুইজনসহ এএফসি কাপের জন্য চার বিদেশি নিয়ে কাজ করছেন। তারা হলেন- নাইজেরিয়ান সানডে, হাইতির বেলফোট, নতুন আসা দক্ষিণ কোরিয়ান ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার লি তাই এবং মিশরীয় ডিফেন্ডার ইসা। আবাহনীর ম্যানেজার সত্যজিৎ দাশ রুপু বলেছেন, ‘কোরিয়ান দলটি তাদের শক্তি নিয়ে খেলবে, আমরা খেলবো আমাদের শক্তি নিয়ে। আমরা জয়ের জন্যই মাঠে নামবো।’

আরআই/আইএইচএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :