ব্রাজিলের ‘মেসি আর্মি’কে ফলো করেন মেসি নিজেও

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৭ পিএম, ২৩ জুন ২০২২

বিশ্বব্যাপী কোটি ক্রীড়ামোদির পছন্দের তারকা লিওনেল মেসি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে মেসির ফলোয়ার সংখ্যা ৩৪ কোটির বেশি। কিন্তু মেসি ফলো করেন মাত্র ২৯৫ জনকে। এর মধ্যে একমাত্র ফ্যান পেজ মেসি ম্যানিয়াকস। যেটি কি না ব্রাজিলের এক সমর্থক দ্বারা পরিচালিত।

মেসি ম্যানিয়াকস নামক ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলকে ২০১৪ সাল থেকে ফলো করেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। এটি পরিচালনা করেন ব্রাজিলের ২৪ বছর বয়সী তরুণী ফ্রান সুজা। শুধু তাই নয়, ব্রাজিলের মেসি ভক্তদের নিয়ে ‘মেসি আর্মি’ও গঠন করেছেন ফ্রান সুজা। যারা সবসময় মেসিকেই সমর্থন দিয়ে যান।

আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম ওলে’কে ফ্রান বলেছেন, ‘তিনি (মেসি) আমাদের ২০১৪ সালে ফলো দেন। আমার কোনো ধারণাই ছিল না এটি কেন হলো, কীভাবে হলো। প্রথমে যখন এটি দেখলাম, বিশ্বাসই করতে পারিনি। সত্যি বলছি, আমি ভেবেছিলাম এটি হয়তো ভুয়া একাউন্ট।’

এই মেসি ম্যানিয়াকস প্রোফাইলের বর্তমান ফলোয়ার সংখ্যা প্রায় ৪৩ লাখ। এর মধ্যে লিওনেল মেসি নিজেও একজন। এখন পর্যন্ত মেসির প্রায় ১৩ হাজারের বেশি ছবি ও ভিডিও আপলোড করা হয়েছে এই প্রোফাইলে। যেগুলোতে গড়পড়তা ১০ হাজারের বেশি লাইক পড়ে নিয়মিত।

jagonews24

২০১৫ সালের কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে হারের পর মেসিকে সাহস জুগিয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ করে মেসি ম্যানিয়াকসের এই মেসি আর্মি। যেটি দেখে খোদ মেসি লাইক করেন এবং মন্তব্যের ঘরে লিখেন, ‘সবাইকে ধন্যবাদ যারা এই দারুণ উপহার আমাকে দিয়েছেন। সবার জন্য ভালোবাসা।’

সে সময়ের অনুভূতি ব্যক্ত করে ফ্রান বলেছেন, ‘মেসি আমাদের অনেক বেশি ভালোবাসা দিয়েছেন। দেখুন, তার জন্য বানানো ভিডিওতে লাইক-কমেন্ট করেছেন তিনি। আমাদের প্রতি ভালোবাসা দেখিয়েছেন, তাকে ধন্যবাদ জানানোর ভাষা জানা নেই আমার।’

শুরুতে একা শুরু করলেও, ধীরে ধীরে ব্রাজিলের অন্যান্য মেসি ভক্তদের নিয়ে মেসি আর্মি গড়ে তুলেছেন ফ্রান। এ বিষয়ে তিনি বলেছেন, ‘মেসি যখনই ব্রাজিলে খেলতে আসে, এই মেসি আর্মি তাকে সমর্থন দিতে যায়। আমরা সবসময় মেসিকে দেখার জন্য উদগ্রীব হয়ে থাকি।’

শুধু তাই নয়, ব্রাজিলের সঙ্গে খেলা হলেও মেসির জন্য আর্জেন্টিনাকে সমর্থন দেন ফ্রান। এজন্য নিজ দেশের অনেকের কাছ থেকে কটু কথাও শুনতে হয় ফ্রানকে। গতবছর মেসির আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকা জেতার পর স্বদেশি ফুটবলপ্রেমিদের তীব্র রোষানলে পড়েছিলেন তিনি।

তাতে কী! খোদ মেসি যাদের ফলো করেন, ভিডিওবার্তায় খুশি হন- তারা কি আর এসব কটূক্তিতে পিছপা হওয়ার? বরং মেসির হাত ধরে এখন আর্জেন্টিনার অন্যান্য ফুটবলার যেমন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, লেয়ান্দ্র পারেদেসদেরও বড় ভক্ত হয়ে গেছেন ২৪ বছর বয়সী এই ফুটবলপ্রেমী।

এসএএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]