ক্রিকেটার আরাফাত সানির বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা


প্রকাশিত: ০৮:৩১ এএম, ২৩ জানুয়ারি ২০১৭
ফাইল ছবি

তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা দায়েরের একদিন পর বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় আরাফাত সানির বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা দায়ের করেছেন নিজেকে এই ক্রিকেটারের স্ত্রী দাবিদার নাসরিন সুলতানা। এবারের মামলাটি তিনি করেছেন যৌতুক আইনে।

এদিকে তথ্য-প্রযুক্তি আইনের মামলায় গতকালই আরাফাত সানিকে একদিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম রায়হানুল ইসলামের আদালতে যৌতুক আইনের মামলাটি দায়ের করা হয়। আরাফাত সানির পাশাপাশি এ মামলাতে তার মা নার্গিস আক্তারকেও আসামি করা হয়েছে।

আদালত সানির বিরুদ্ধে মামলাটি আমলে নিয়ে ৫ এপ্রিলের মধ্যে তাকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ দিয়েছেন। সানির মা নার্গিস আক্তারের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নেয়নি আদালত। মামলার সাক্ষী করা হয়েছে ৪ জনকে।

বাদীর আইনজীবী কামাল উদ্দিন আহম্মেদ ও নাছিম জামান রুবি জাগো নিউজকে বলেন, যৌতুক আইনে ক্রিকেটার সানির বিরুদ্ধে আদালতে একটি মামলা করা হয়েছে। আদালত ক্রিকেটার সানির বিরুদ্ধে মামলাটি আমলে নেন এবং তাকে ৫ এপ্রিলের মধ্যে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

মামলার বাদী নাসরিন সুলতানা জাগো নিউজকে বলেন, বিয়ের পর থেকে সানি আমার কাছে ২০ লাখ টাকা যৌতুকের দাবি করেন। আমি তা দিতে অস্বীকার করলে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করতে থাকেন। তাই আমি আদালতে যৌতুক আইনে তার ‍বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছি।

মামলার অভিযোগ উল্লেখ করা হয়, ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর নাসরিন আক্তারের সঙ্গে ক্রিকেটার আরাফাত সানির ৫ লাখ ১ টাকায় দেনমোহরানায় বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে ২০১৫ সালের ২৯ জুলাই ক্রিকেটার সানি ২০ লাখ টাকা যৌতুকের দাবি করেন। যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় তাকে বিভিন্নভাবে গালাগালি করতে থাকেন।

২০১৬ সালেল ২৩ ডিসেম্বর নাসরিন তাকে ঘরে তুলে নেয়ার আবেদন করলে সানি যৌতুকের টাকার জন্য চাপ দিতে থাকেন। সর্বশেষ ২০১৭ সালের ১৯ জানুয়ারি বাদীর কাছে ২০ লাখ টাকা যৌতুকের টাকা দাবি করেন ক্রিকেটার সানি। তিনি দিতে অস্বীকার করলে বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করতে থাকেন। বাদী নিরুপায় হয়ে আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

জেএ/এনএফ/জেডএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]