নতুন ফিচার নিয়ে এসেছে টুইটার

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:১৩ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০২০

চলতি বছর মার্চ মাসে প্রথমবার লঞ্চ হয়েছিল Twitter Fleets। এবার সেই ফিচারের সুবিধা পাবেন বিশ্বের সব টুইটার ব্যবহারকারী। সম্প্রতি এক ঘোষণায় এ কথা জানিয়ে দিল Twitter। এর পাশাপাশি ভয়েস কনভার্সেশনের রুমের জন্য 'Spaces' নামে একটি ফিচার ডেভেলপের কথাও জানানো হয়েছে।

Snapchat বা অন্যান্য অ্যাপে স্টোরি আপলোডের মতো এবার Twitter-এও একটি আলাদা ট্যাবের সাহায্যে কোনো ফটো, লেখা বা ভিডিও পোস্ট করা যাবে। যা একদিন অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টা পর নিজে থেকেই মুছে যাবে। এই বিশেষ ফিচারটির নাম হল Twitter Fleets। একটি ব্লগপোস্টে Twitter Fleets সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হয়েছে Twitter-এর তরফে।

সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, Twitter Fleets-এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা আরও বেশি করে নানা কথোপকথনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। মূলত 'মোমেন্টারি থটস' শেয়ারিংয়ের ফিচার এটি। এতে অনেকটা বেশি স্বচ্ছন্দ অনুভব করবেন মানুষজন। বিশেষ করে Twitter-এ যারা নতুন, তারা এই Twitter Fleets-থেকে বাড়তি সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। তাদের ইতস্ততভাব কমবে। বেশি ভাবনা-চিন্তা না করে তারা তাদের ধ্যান-ধারণা শেয়ার করতে পারবেন। কারণ একদিন পরই এই পোস্টগুলো মুছে যাবে।

এই ফিচারটি ভারতে এসেছিল জুন মাসে। বর্তমানে শুধুমাত্র Android ও iOS অ্যাপেই রয়েছে। তবে ওয়েব-ইউজাররা কবে থেকে এই Twitter Fleets-এর সুবিধা পাচ্ছেন, সে বিষয়ে এখনো কিছুই জানা যায়নি। এ ক্ষেত্রে Twitter Fleet আপলোড করতে হলে ব্যবহারকারীদের একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে।

প্রথমে অ্যাপের উপরের বাম দিকের কোণে '+' সাইনটি খুঁজে বের করতে হবে। তারপর Snapchat, WhatsApp, Instagram, Facebook বা LinkedIn-এর মতোই টেক্সট, ফটো, GIF আপলোড করা যাবে।

jagonews24

ইতিমধ্যেই Spaces ভয়েস চ্যাটরুমের উপর কাজ শুরু করে দিয়েছে Twitter। এ বিষয়ে Twitter-এর প্রোডাক্ট ডিজাইনার মায়া পেটারসন জানিয়েছেন, এই ফিচার ডেভেলপ করার পিছনে একটি আলাদা উদ্দেশ্য রয়েছে। এই ফিচারের সাহায্যে পাবলিক সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মের মধ্যেও ব্যক্তিগত কথোপকথনের জন্য একটি নিরাপদ জায়গা বা সেফ স্পেস তৈরি করা যাবে।

প্রযুক্তিবিদদের মতে, Spaces ফিচারে একসঙ্গে বেশ কয়েকজন অংশগ্রহণ করতে পারবেন। এমনকি এই কথোপকথনে অংশ নেওয়ার জন্য আবেদনও জানাতে পারবেন Twitter ইউজাররা। এই সবের পাশাপাশি এই চ্যাটরুমে কারা অংশ নিয়েছেন, কারা কথা বলছেন, সেই বিষয়টিও দেখতে পাবেন ব্যবহারকারীরা।

এ নিয়ে সম্প্রতি একটি প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়েছে Verge-এ। মায়া পেটারসন আরও জানিয়েছেন, এই ফিচার মূলত একটি ছোট গ্রুপ ও সীমিতসংখ্যক ব্যবহারকারীর জন্যই উপলব্ধি হবে। এই ফিচারে Tweet সংযুক্ত করার পাশাপাশি ট্রান্সক্রিপশন দেখার সুযোগও রয়েছে।

প্রসঙ্গত, জুন মাসে প্রথমবার Voice Tweets ফিচারের কথা জানিয়েছিল সংস্থা। যা ১৪০ সেকেন্ডের অডিও সংশ্লিষ্ট ট্যুইটে জুড়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। তবে এই ফিচারটি কবে থেকে কাজ শুরু করবে, সেই বিষয়ে স্পষ্টভাবে এখনও কিছুই জানা যায়নি।

এমএমএফ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]