মোবাইল-ট্যাব-কম্পিউটারে স্ক্রিনশট নেওয়ার উপায়

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৩৯ পিএম, ৩০ নভেম্বর ২০২১

অনেক সময় মোবাইলে কোনো লেখা বা কারো ছবি দেখতে গিয়ে সেভ করার সুযোগ থাকে না। এক্ষেত্রে স্ক্রিনশট নিয়ে সেটাকে সংরক্ষণ করা আরও বেশি সহজ। শুধু মোবাইল ই নয় ট্যাব, কম্পিউটার থেকে শুরু করে এখন স্মার্ট ওয়াচেও স্ক্রিনশট নেওয়া যায়।

খুব সহজেই এসব ডিভাইসে স্ক্রিনশট নিতে পারবেন। বিভিন্ন থার্ড পার্টি টুল ব্যবহার করেও স্ক্রিনশট নেওয়া যায়। আবার ডিভাইসের সফটওয়্যার দিয়েও নেওয়া যায় স্ক্রিনশট। চলুন জেনে নেওয়া যাক কোন ডিভাইসে কীভাবে স্ক্রিনশট নেওয়া যায়-

অ্যান্ড্রয়েড ফোন ও ট্যাবে যেভাবে স্ক্রিনশট নেবেন-

> একেক ব্র্যান্ডের অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের সফটওয়্যার একেক ধরনের হয়ে থাকে। যার ফলে প্রতিটি অ্যান্ড্রয়েড ফোনে স্ক্রিনশট নেওয়ার একই পদ্ধতি কাজ নাও করতে পারে। বেশিরভাগ অ্যান্ড্রয়েড ফোনে Power Button + Volume Down Key একসঙ্গে চাপলে স্ক্রিনশট নেওয়ার সুবিধা রয়েছে।

> কিছু কিছু অ্যান্ড্রয়েড ফোনের নোটিফিকেশন বা কুইক একসেস প্যানেলে (যেখানে ওয়াইফাই ও মোবাইল ডাটা চালু/বন্ধ করার শর্টকাট থাকে) স্ক্রিনশট অপশন রয়েছে।

> এছাড়াও ফোনে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট বা বিক্সবি সঠিকভাবে কাজ করলে, এসব স্মার্ট অ্যাসিস্ট্যান্ট ব্যবহার করেও স্ক্রিনশট নেওয়া যায়।

> কয়েকটি অ্যান্ড্রয়েড ফোনে থ্রি ফিংগার স্ক্রিনশট নেওয়া যায়। যেখানে স্ক্রিনে তিনটি আংগুল একসঙ্গে সোয়াইপ করলেই স্ক্রিনশট উঠে।

> অ্যান্ড্রয়েড ট্যাবসমূহ যেহেতু একই অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চালিত। তাই ফোনের মতো একই উপায়ে স্ক্রিনশট তোলা যাবে।

আইফোন ও আইপ্যাডে স্ক্রিনশট নেওয়ার উপায়-
> যেসব আইফোনে হোম বাটন নেই, যেমন- আইফোন ১০, ১১, ১২, কিংবা ১৩, এসব আইফোনে Power Butoon + Volume Up Key একসঙ্গে চেপে স্ক্রিনশট নেওয়া যাবে।

> আইফোনে যদি হোম বাটন থাকে, সেক্ষেত্রে Sleep/Wake Button + Home Button একসঙ্গে প্রেস করলে ক্যামেরা শাটার ও স্ক্রিন ফ্ল্যাশ দেখতে পাবেন ও স্ক্রিনশট উঠবে। স্ক্রিনশটসমুহ গ্যালারির Screenshots অ্যালবামে সেভ হয়।

> আইপ্যাডের সঙ্গে অ্যাপল পেন্সিল ব্যবহার করলে ড্রয়িং টুল ব্যবহার করে বেশ সহজে স্ক্রিনশট নেওয়া যাবে। অ্যাপল পেন্সিল দিয়ে বোটম কর্নার থেকে সোয়াইপ আপ করে স্ক্রিন ক্যাপচার করা যাবে। এক্ষেত্রে সম্পূর্ণ স্ক্রিন বা বর্তমান উইন্ডোর মধ্যে যে কোনো একটি স্ক্রিনশট হিসেবে সেভ করা যাবে।

> কিছু কিছু অ্যাপে স্ক্রিনশট নেওয়া বেশ দুরুহ হয়ে পড়ে। সেক্ষত্রে বিল্ট-ইন স্ক্রিন রেকর্ডিং টুল বেশ কাজে আসতে পারে। যদিওবা এটি ব্যবহার করা হয় মূলত স্ক্রিন রেকর্ড করে ভিডিও তৈরিতে, কিন্তু এটি ব্যবহার করে ভিডিও রেকর্ড করে সেখান থেকে স্ক্রিনশট নেওয়া সম্ভব।

উইন্ডোজ ১১-তে স্ক্রিনশট নেওয়ার উপায়-
> উইন্ডোজ ১১ চালিত কম্পিউটারে Alt Key + PrtSc Key একসঙ্গে প্রেস করে স্ক্রিনশট নেওয়া যাবে।

> এছাড়াও Windows Key + PrtSc Key একসঙ্গে প্রেস করে স্ক্রিনশট নেওয়া যাবে। যা Pictures > Screenshots ডিরেক্টরিতে সেভ হবে।

> এছাড়াও গেমিং বার এর নাম বদলে এক্সবক্স গেমিং বার রাখা হলেও এখনো Windows Key + G Key একসঙ্গে প্রেস করলে এই গেমিং বার এর দেখা মিলবে উইন্ডোজ ১১ তে।

> Windows Key + Alt Key + PrtSc একসঙ্গে প্রেস করে গেমিং বার ওপেন না করেই স্ক্রিনশট নেওয়া যাবে।

উইন্ডোজ ১০-এ স্ক্রিনশট নেওয়ার উপায়-
> উইন্ডোজ ১০ এ স্ক্রিনশট নেওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে PrtScn/Print Screen কি প্রেস করা। বেশিরভাগ কিবোর্ডে উপরের সেকশনে এই বাটনটি দেখা যায়। এই কি চেপে স্ক্রিনশট নেওয়ার পর Ctrl + V চেপে উক্ত স্ক্রিনশট পেস্ট করা যায়।

> প্রিন্ট স্ক্রিন বাটন চেপে স্ক্রিনশট নিলে সেটি প্রথমে ক্লিপবোর্ডে কপি হয়ে থাকে। নিজে নিজে কোথাও ইমেজ ফাইল আকারে সেভ হয়না। তবে আপনি চাইলে মাইক্রোসফট পেইন্ট বা অন্য প্রোগ্রাম ওপেন করে ইমেজটি পেস্ট করে সেভ করতে পারেন।

> একাধিক মনিটর থাকলে কিংবা স্ক্রিনের নির্দিষ্ট অংশের স্ক্রিনশট নিতে চাইলে ফিচারটি তেমন কাজের না। সেক্ষেত্রে Alt Key + Print Screen Key একসঙ্গে চাপলে নিচের ছবির মত দেখতে একটি টুল দেখতে পাবেন। এ টুল ব্যবহার করে আপনার পছন্দমত স্ক্রিনশট নিতে পারবেন।

> এছাড়াও Snip & Sketch প্রোগ্রামটি ব্যবহার করেও স্ক্রিনশট নেওয়া সম্ভব। উইন্ডোজ সার্চ করে কিংবা Shift Key+ Windows Key + S Key একসঙ্গে প্রেস করলে উক্ত প্রোগ্রাম চালু হবে।

অ্যাপল ওয়াচে যেভাবে স্ক্রিনশট নেবেন-
> অ্যাপল ওয়াচ এ স্ক্রিনশট নিতে হলে প্রথমে ফিচারটি চালু করতে হবে। এই ফিচারটি চালু করতে আইফোনে ওয়াচ অ্যাপটি ওপেন করুন ও My Watch > General এ প্রবেশ করে Enable Screenshots ফিচারটি চালু করুন। এরপর ওয়াচ এর সেটিংসে প্রবেশ করে General এ প্রবেশ করে ফিচারটি চালু করুন।

> স্ক্রিনশট নেওয়ার ফিচার চালু করার পর অ্যাপল ওয়াচের স্ক্রিন ক্যাপচার করতে স্ক্রিনে সোয়াইপ আপ করুন। এছাড়াও সাইড বাটন ও ডিজিটাল ক্রাউন একসঙ্গে প্রেস করেও স্ক্রিনশট নেওয়া যাবে। উল্লেখ্য যে এই স্ক্রিনশট আপনার ওয়াচে নয়, বরং আইফোনে সেভ হবে।

কেএসকে/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]