টুইটার কিনেই কী পরিবর্তন আনছেন ইলন মাস্ক

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১২ পিএম, ২৬ এপ্রিল ২০২২

সব জল্পনা-কল্পনা এবং দরদামের পর টুইটার কিনলেন ইলন মাস্ক। এই মাইক্রো ব্লগিং সাইটটি কিনতে মাস্কের খরচ পড়েছে ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এরই মধ্যে সংস্থার সব কর্মীর কাছে একটি মেইল করে পুরো বিষয়টি জানিয়েছেন টুইটারের সিইও পরাগ আগরওয়াল। ২৫ এপ্রিল সোমবার পুরো বিষয়টি সম্পন্ন হয়।

দীর্ঘদিন ধরেই ইলন মাস্কের টুইটার কেনা নিয়ে আলোচনা চলছিল। মাসখানেক আগে একটি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম চালু করার বিষয়ে নিজের আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন মাস্ক। যদিও সেসময় টুইটার কেনার প্রসঙ্গে কোনো মন্তব্য করেননি। বরং টুইটারের সমালোচনা করেছিলেন তিনি।

তার কথায়, বাকস্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করছে টুইটার। কন্টেন্ট মডারেশনের ক্ষেত্রে একাধিক ভুল-ত্রুটি তার নজরে এসেছে। হয়তো টুইটার কিনে নিয়েই কন্টেন্ট মডারেশন ঢেলে সাজাতে চেয়েছিলেন মাস্ক।

গত ৯ এপ্রিল টুইটারের ৯.৩ শতাংশ শেয়ার কিনে প্রতিষ্ঠানটির সবচেয়ে বড় শেয়ারহোল্ডার হয়ে ওঠেন ইলন মাস্ক। এর পরের সপ্তাহে টুইটার কিনতে ৪ হাজার ৩০০ কোটি ডলারের প্রস্তাব দেন টেসলা সিইও।

তবে ইলন মাস্কের কাছে বিক্রি ঠেকাতে ‘পয়জন পিল’ নামে একধরনের পাল্টা ব্যবস্থা নেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ, যাতে প্রতিষ্ঠানটির দাম আরও বেশি হয়ে পড়ে। কিন্তু শেষমেষ তারা সেই অবস্থান থেকে সরে এসেছে বলে জানা গেছে।

একসময় গুঞ্জন ছড়িয়েছিল, টুইটার কেনার মতো যথেষ্ট নগদ অর্থ মাস্কের কাছে নেই। তবে দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট জানিয়েছে, টুইটার কেনার জন্য পর্যাপ্ত অর্থ এরই মধ্যে জোগাড় করে ফেলেছেন বর্তমান বিশ্বের শীর্ষ ধনী। এই কেনাবেচা নিয়ে টুইটারের সিইও পরাগ আগরওয়াল বলেন, বিশ্বে টুইটারের গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। আমাদের টিমের জন্য আমার গর্ব হয়।

বোর্ডের চেয়ারম্যান ব্রেট টেলর বলেন, ইলন মাস্কের যে প্রস্তাব ছিল, তা খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তারা মনে করছেন টুইটারের স্টেক হোল্ডারদের আরও ভালোভাবে কাজ করার সুযোগ মিলবে।

আগামী দিনে বড় কী পরিবর্তন আসবে সে বিষয়ে এখনোই বিস্তারিত কিছু বলেননি ইলন মাস্ক। তবে তার কথায় ইঙ্গিত কন্টেন্ট মডারেশনে বড়সড় পরিবর্তন আসতে পারে। পরিবর্তন শুরু হবে হয়তো বাকস্বাধীনতা থেকেই। এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

এ ধারণা আরও জোড়ালো হয়েছে এ বিষয়ে ইলন মাস্কের একটি টুইট থেকে। সেখানে তিনি একটি স্ক্রিনশটসহ টুইট করেন। যেখানে শুধু বাকস্বাধীনতার উপর কথা বলা হয়েছে। ওই ইমেজের সঙ্গে শুধু ‘ইয়েস’ লিখে পোস্ট করেন মাস্ক।

সূত্র: বিবিসি

কেএসকে/এসইউ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]