ঘুমের মধ্যে শ্বাস বন্ধ হলে জানাবে নতুন যন্ত্র

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:২৫ পিএম, ০৪ মার্চ ২০২১

অনেকেই স্লিপ অ্যাপনিয়ায় ভোগেন। এই সমস্যা ঘুমের মধ্যে হয়। এতে বার বার শ্বাস নিতে হয়, কারণ ঘুমের মধ্যে শ্বাস বন্ধ হয়ে যায়। কেউ যদি খুব জোরে নাক ডাকেন এবং তার পর ক্লান্তি বোধ করেন বা সারা রাত ঘুমোনোর পরও সকালে উঠে ক্লান্ত লাগে। এই সমস্যায় ভুগলে অনেকেই বুঝতে পারে না। এতে শ্বাসও অনেকক্ষণ বন্ধ থাকতে পারে। তাতে বড় কোনো সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়। তাই এই শ্বাস বন্ধ হলেই এবার থেকে অ্যালার্ম বাজতে পারে। যা বাস্তবায়িত করার জন্য এবার অত্যাধুনিক সেনসর আনছে ভারতের হায়দরাবাদের BITS Pilani.

এই সেনসর অত্যন্ত হালকা ওজনের। যেভাবে হার্ট রেট মনিটর করা হয়, সেভাবেই এই সেনসর ঘুম মনিটর করবে। ICU-তে যেভাবে হার্ট রেট কমতে থাকলে অ্যালার্ম বাজে এবং চিকিৎসকরা জানতে পারেন, সেভাবেই শ্বাস ১৫ সেকেন্ডের বেশি বন্ধ হলে এই অ্যালার্ম বেজে উঠবে।

এই সেনসরকে মাস্কে লাগিয়ে, ব্লুটুথের দ্বারা স্মার্টফোনের সঙ্গে সংযোগ করলে অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া বোঝা যাবে। বর্তমানে এই বিষয়টি নির্ধারণ করার জন্য বেশ কিছু যন্ত্রের সাহায্য নেয়া হয়। যা শুধু ওজনে ভারী তা নয়, আয়তনেও যথেষ্ট বড়। ফলে সব জায়গায় নিয়ে যাওয়া যায় না এবং সহজে এই রোগ ধরা পড়ে না। কিন্তু এই সেনসর এলে বাজারে সকলেই সকলের শরীর নিজে থেকেই চেক-আপ করতে পারবেন।

তবে শুধু অ্য়ালার্ম বাজানোতেই এই অ্যাপের কাজ থেমে নেই। প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই সেনসর ঘুমের ধরনও লক্ষ্য করে। যেমন খুব ডিপ ঘুম বা হালকা ঘুম এগুলো ধরতে পারে, পাশাপাশি শ্বাস-প্রশ্বাসের ধরনও বুঝতে পারে।

এই বিষয়ে BITS Pilani-র অধ্যাপক হিমাংশু আগরওয়াল জানান, এই ডিভাইজটি বিভিন্ন ধরনের ঘুম ডিটেক্ট করতে পারে। শ্বাস-প্রশ্বাসের ধরন বুঝতে পারে। এবং আপেক্ষিক আর্দ্রতা ও অন্যান্য কী কারণে এই শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা হচ্ছে তাও বুঝতে পারে।

তিনি জানিয়েছেন, এই নিয়ে কাজ চলছে। ইতিমধ্যেই চারজনের একটি টিম স্মার্টফোনের সঙ্গে এর সংযুক্তকরণের ব্যাপারে কাজ করছে। তিনি বলেন, যদি কোনও রোগী ১৫ সেকেন্ডের বেশি শ্বাস না নেন, তাহলে তাকে একটি মেসেজে বা অ্যালার্ম দেয়া হয়। তবে, এখনও বাণিজ্যিক স্তরে এই সেনসর নিয়ে কিছু ভাবা হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

এমএমএফ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]