ফেসবুকে পরিচয় : প্রেমের টানে প্রবাসী তরুণ মৌলভীবাজারে


প্রকাশিত: ১০:১৯ এএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৭

প্রেমের টানে বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশে তরুণ-তরুণীদের ছুটে আসার গল্প নতুন নয়। সম্প্রতি দেশের কয়েকটি জেলায় এমন ঘটনা ঘটেছে। এবারও সেই একই ঘটনা ঘটল হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বড় পিরিজপুর গ্রামে।

এবার ফেসবুকে প্রেমের সূত্র ধরে সুদূর যুক্তরাজ্য থেকে হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বড় পিরিজপুর গ্রামে প্রেমিকার বাড়িতে ছুটে এসেছেন লন্ডন প্রবাসী বাকপ্রতিবন্ধী সিরাজ আহমদ। ওই তরুণের প্রেমিকার নাম ফাবিহা খানম পান্না। তিনি ওই গ্রামের মৃত মুহিব উদ্দিনের তৃতীয় মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তাদের পরিচয় হয়। পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, পরে প্রেম। এরপর বাংলাদেশ আর লন্ডনের দূরত্ব ঘুচিয়ে এ যুগল এখন পরিণয়ে আবদ্ধ হওয়ার পথে।

এদিকে সিরাজ ও পান্নার প্রেমের সফল পরিণতির গল্প এখন মৌলভীবাজারের মানুষের মুখে মুখে। সিরাজ মৌলভীবাজার সদর উপজেলার একাটুনা ইউনিয়নের উলুয়াইল গ্রামের মৃত হাজি মখলিছুর রহমানের ছেলে।

আগামী ২১ এপ্রিল (শুক্রবার) তাদের বিয়ের দিন ধার্য করা হয়েছে। সিরাজ ও পান্নার প্রেমের সফল পরিণতির এ গল্প এখন সবার আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু।

সিরাজ আহমদের চাচাত ভাই মৌলভীবাজার জেলা যুব সংস্থার সভাপতি আলিম উদ্দিন হালিম তাদের বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, এখন থেকে দুই বছর আগে ফেসবুকে ফাবিহা খানম পান্নার সঙ্গে সিরাজের পরিচয় হয়। এরপর দুজনের মধ্যে বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে।

একপর্যায়ে পরস্পরকে ভালোবেসে ফেলেন তারা। তারা দুজনই বাকপ্রতিবন্ধী। পরে তারা সিদ্ধান্ত নেন বিয়ে করার। গত চারদিন আগে সিরাজ লন্ডন থেকে মা ও ছোট ভাইকে নিয়ে দেশে আসেন। পরে আলাপ আলোচনা করে দুই পরিবারের যৌথ উদ্যোগে বিয়ের দিন ধার্য করা হয়।

এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :