ধর্মীয় পরিচয় বদলে গৃহবধূর সঙ্গে পরকীয়া অতঃপর...

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:৩৩ পিএম, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ১১:০৮ এএম, ২৯ অক্টোবর ২০১৭
ধর্মীয় পরিচয় বদলে গৃহবধূর সঙ্গে পরকীয়া অতঃপর...

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় নিজের ধর্ম-পরিচয় গোপন করে মুসলিম সেজে এক গৃহবধূর সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে প্রতারণার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে ওই গৃহবধূকে একাধিক বার ধর্ষণ করা হয়েছে মর্মে থানায় মামলা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত যুবকের নাম চন্দ্র সরকার (৪০)। বুধবার সকালে ফতুল্লার ইসদাইর বুড়ির দোকান এলাকা থেকে ধর্ষক চঞ্চলকে গ্রেফতার করে দুপুরে পুলিশ তা নিশ্চিত করে। এ ঘটনায় গৃহবধূর মা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন।

গ্রেফতার চঞ্চল চন্দ্র সরকার বগুড়ার ধনট থানার সরকার পাড়া এলাকার সুশিল চন্দ্র সরকারের ছেলে। তিনি নারায়ণগঞ্জে একটি পরিবহনে কাজ করেন। এ সুযোগে স্ত্রী সন্তানকে গ্রামের বাড়িতে রেখে ইসদাইর বুড়ির দোকান এলাকায় বসবাস করছেন তিনি।

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (এসআই) আতাউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তিন বছর আগ থেকে বন্দর চৌধুরী বাড়ি এলাকার এক গৃহবধূর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন চঞ্চল।

চঞ্চল নিজের ধর্ম-পরিচয় গোপন রেখে গৃহবধূকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দৈহিক সম্পর্ক করে আসছিলেন। একপর্যায়ে গৃহবধূ জানতে পারেন চঞ্চল হিন্দু। পরে তার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেন গৃহবধূ।

কিন্তু গত ৫ সেপ্টেম্বর চঞ্চলের ৩-৪ জন বন্ধুর সহায়তায় ওই গৃহবধূকে নারায়ণগঞ্জে নিয়ে সাদা কাগজে স্বাক্ষর করিয়ে তাদের বিয়ে হয়েছে এবং চঞ্চল মুসলিম হয়েছে বলে গহবধূর সঙ্গে প্রতারণা করা হয়।

এসআই আরও জানান, প্রতারণার মাধ্যমে গৃহবধূকে বিয়ে করার নাম করে ধর্ষণ করেছে এমন অভিযোগের পর চঞ্চলকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করা হয়েছে এবং তাকে সেই মামলায় আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

তবে চঞ্চল মুসলিম হয়েছে কিনা এবং তাদের বিয়ে হয়েছে কিনা তা জানতে চাইলে পুলিশকে কোনো ধরনের কাগজপত্র দেখাতে পারেনি চঞ্চল-যোগ করেন এসআই।

শাহাদাত হোসেন/এএম/এমএস