কাজের মেয়ের সহযোগিতায় ডাকাতি, অতঃপর ধরা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি হবিগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৩:৩৩ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০৬:১৬ এএম, ২৮ নভেম্বর ২০১৭
কাজের মেয়ের সহযোগিতায় ডাকাতি, অতঃপর ধরা

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় কাজের মেয়ের সহযোগিতায় একটি বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মা-মেয়েসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার ভোরে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- গাঙ্গাইল গ্রামের খুর্শেদ আলীর স্ত্রী সালেহা (৩৫), তার মেয়ে তানজিনা (১৮), চুনারুঘাট উপজেলার কাচুয়া গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে সেলিম (২৫)। এদের মধ্যে তানজিনা ডাকাত ফজর আলীর স্ত্রী।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মমিনুল ইসলাম বলেন, তানজিনা ও তার মা সালেহা উপজেলার বহরা ইউনিয়নের গাঙ্গাইল গ্রামের নুরুজ্জামান হুজুরের বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে গৃহকর্মীর কাজ করতেন।

গত ১৪ আগস্ট রাতে মা ও মেয়ের সহযোগিতায় ওই বাড়ি থেকে ১০-১২ জনের ডাকাত দল অস্ত্রের মুখে নগদ পাঁচ লাখ টাকা ও ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কারসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুটে নেয়।

পুলিশ জানায়, স্বামী-স্ত্রী ও শাশুড়ির পরিকল্পনায় এ ডাকাতি সংগঠিত হয়। এ ঘটনার পরদিন মাওলানা নুরুজ্জামান বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের নামে মাধবপুর থানায় একটি মামলা করেন।

নুরুজ্জামান হুজুরের বাড়ি থেকে লুট করে নেয়া মোবাইলফোনের সূত্র ধরে পুলিশ উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের জজ মিয়ার ছেলে ফারুককে (৩০) গ্রেফতার করে। পরে তার দেয়া তথ্যে ওই তিনজনকে সোমবার গ্রেফতার করা হয়। এ নিয়ে এ মামলায় মোট ৯ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এএম/আইআই