দুই কলেজছাত্রীকে মারধর, গ্রেফতারদের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ১০:১৭ এএম, ২১ ডিসেম্বর ২০১৭
দুই কলেজছাত্রীকে মারধর, গ্রেফতারদের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ

টাঙ্গাইলের সখীপুরে দুই কলেজছাত্রীকে রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় গ্রেফতার বখাটেদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও লাঠি মিছিল করেছে সখীপুর আবাসিক মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সখীপুর পৌর শহরের মোখতার ফোয়ারা চত্বরে এ মানববন্ধন ও লাঠি মিছিল করে তারা। এ সময় বখাটেদের শাস্তির দাবি করে মিছিল করে শিক্ষার্থীরা।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় পৌর শহরের আবাসিক মহিলা কলেজ সড়কের রফিকরাজু ক্যাডেট স্কুলের সামনে দুই ছাত্রীকে পেটানোর ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পাঁচ বখাটেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আহতরা হলেন- সখীপুর আবাসিক মহিলা কলেজের হিসাব বিজ্ঞানের স্নাতক (সম্মান) তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী তাসলিমা সুলতানা স্বর্ণা। তিনি ভালুকা উপজেলার পাঁচগাঁও গ্রামের আবদুল হালিমের মেয়ে ও বাংলা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী সুস্মিতা। তার বাড়ি একই উপজেলার ডাকাতিয়া গ্রামে।

এ ঘটনায় ওই কলেজের অধ্যক্ষ রেনুবর রহমানের করা মামলায় বুধবার রাতেই পাঁচ যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতাররা হলেন- পৌর এলাকার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের হজরত আলীর ছেলে ও লোকাল বয়েজ ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মনোয়ার হোসেন অন্তর, ১নং ওয়ার্ডের লিয়াকত আলীর ছেলে সাকিব আল হাসান, ৪নং ওয়ার্ডের রফিকুল ইসলামের ছেলে সিয়াম হোসেন এবং ১নং ওয়ার্ডের সোহেলের ছেলে কাব্য ও উপজেলার আড়াইপাড়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে জাহিদ হাসান আগুন।

কলেজের অধ্যক্ষ রেনুবর রহমান বলেন, এ বিষয়ে বুধবার রাতেই থানায় মামলা করা হয়েছে এবং পাঁচ বখাটেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত গ্রেফতারদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

এ প্রসঙ্গে সখীপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাকছুদুল আলম বলেন, এ ঘটনায় জড়িত পাঁচ যুবককে বুধবার রাতেই গ্রেফতার করে বৃহস্পতিবার সকালে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আরিফ উর রহমান টগর/এএম/আইআই