উদ্যোক্তা-পরিচালকরাই ফারমার্স ব্যাংক শেষ করেছেন : অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০২:৫৩ পিএম, ২১ ডিসেম্বর ২০১৭

নানা কারণে সমালোচনায় থাকা ফারমার্স ব্যাংক বন্ধ হওয়ার কোনো শঙ্কা নেই জানিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, যারা এই ব্যাংকটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন সেই উদ্যোক্তা-পরিচালকরাই লুটপাট করে ব্যাংকটি শেষ করে দিয়েছেন। তবে বাংলাদেশে কোনো ব্যাংকের পতন হয় না। হতে দেয়া হয় না।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সিলেট শহরতলির ইসলামপুরে বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক কর্পোরেশনের (বিডিবিএল) ৩৭তম শাখার উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

ব্যাংকে গিয়ে গ্রাহকরা আমানত পাচ্ছেন না কেন- এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক বিষয়টি তদারকি করছে। তারা এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে। প্রশাসক নিয়োগের ব্যাপারেও তারা সিদ্ধান্ত নেবে।

এর আগে ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মঞ্জুর আহমদের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন আবুল মাল আবদুল মুহিত। আরও বক্তব্য দেন ব্যাংকটির পরিচালক মোস্তাক আহমদ, আবু হানিফ খান, ড. একেএম ওবায়দুর রব, এসপার হোসেন পিয়ার।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালে রাজনৈতিক বিবেচনায় সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীরের ফারমার্স ব্যাংককে অনুমোদন দেয়ার পর কার্যক্রম শুরুর পরই ব্যাংকটি অনিয়মে জড়িয়ে পড়ে। আস্থার সংকট তৈরি হলে আমানতকারীদের অর্থ তোলার চাপ বাড়ে। পরিস্থিতির অবনতি হলে ব্যাংকটির চেয়ারম্যান পদ ছাড়তে বাধ্য হন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর ও নিরীক্ষা কমিটির চেয়ারম্যান মাহাবুবুল হক চিশতী। পরিচালক পদ থেকেও পদত্যাগ করেন তারা। এরপর ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এ কে এম শামীমকেও অপসারণ করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এমন পরিস্থিতিতে পরবর্তী করণীয় নিয়ে সময় নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কিন্তু আমানতকারীদের মধ্যে আস্থার সংকট কাটছে না। ব্যাংকটিতে অর্থ তুলতে গিয়ে আমানতকারীদের বেশির ভাগই খালি হাতে ফিরছেন।

ছামির মাহমুদ/আরএআর/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :