চাঁপাইনবাবগঞ্জে বাড়ছে ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি চাঁপাইনবাবগঞ্জ
প্রকাশিত: ১২:০৩ পিএম, ০৮ জানুয়ারি ২০১৮
চাঁপাইনবাবগঞ্জে বাড়ছে ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা

টানা কয়েকদিনের কনকনে ঠান্ডায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। অধিকাংশ দিনই দুপুর ১২টার আগে দেখা মিলছে না সূর্যের। আর এখন কুয়াশার সঙ্গে যোগ হয়েছে ঠান্ডা বাতাস। এতে করে বিঘ্নিত হচ্ছে স্বাভাবিক কাজকর্ম। ঠান্ডার কারণে সবচেয়ে বেশি কষ্টে রয়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ। হাসপাতালেও বাড়ছে ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, পর্যাপ্ত ওষুধ সরবরাহ রয়েছে, আতংকিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

সোমবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের পুরাতন কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা গেছে, অলস সময় কাটাচ্ছেন সেখানে কর্মরত দিনমজুররা। পর্যাপ্ত গরম কাপড় না থাকায় কেউ কেউ আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন।

দিন মজুর শরিফুল ইসলাম ও আব্দুল কাদের জানান, ঠান্ডার কারণে কাজ কমে যাওয়ায় অলস সময় কাটাতে হচ্ছে তাদের।

chapainawabganj

চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. মো. নাদিম সরকার জানান, ঠান্ডার কারণে দিন দিন রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। ঠান্ডাজনিত রোগে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা। এছাড়াও শ্বাসকষ্টজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন বয়স্করা। গত ২৪ ঘণ্টায় ঠান্ডাজনিত ডায়েরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ২৩ জন শিশু ও শ্বাসকষ্টজনিত ২৮ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন।

পহেলা জনুয়ারি থেকে ঠান্ডাজনিত ডায়েরিয়ায় আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছে প্রায় ২৫০ জন। বহির্বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছে আরও ২শ রোগী।

তিনি জানান, হাসপাতালে পর্যাপ্ত ওষুধ সরবরাহ রয়েছে এবং শিশুদের ওয়ার্ড গরম রাখার জন্য অতিরিক্ত বৈদ্যুতিক বাল্ব লাগানো হয়েছে। এ অবস্থায় আতংকিত হওয়ার কিছু নেই।

আব্দুল্লাহ/এফএ/জেআইএম