চলনবিলে জলাবদ্ধতায় ধান কাটা নিয়ে বিপাকে কৃষক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৭:৫৪ পিএম, ১৭ মে ২০১৮
চলনবিলে জলাবদ্ধতায় ধান কাটা নিয়ে বিপাকে কৃষক

উত্তরাঞ্চলের শস্যভাণ্ডার খ্যাত সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার চলনবিল অধ্যুষিত চারটি ইউনিয়নে জলাবদ্ধতার কারণে ধান কাটা নিয়ে বিপাকে পড়েছে কৃষক। শুকনো জমির ধান কাটা প্রায় শেষ হয়ে গেলেও চলনবিলের জমির মধ্যে হাটু পানি থাকার কারণে প্রায় ১২শ হেক্টর জমির ধান কাটতে হিমশিম খেতে হচ্ছে কৃষকদের।

চলনবিল অধ্যুষিত তাড়াশ উপজেলার সদর, মাগুড়া বিনোদ, সগুনা ও তালম ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রামে এ জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে।

Sirajgon

তালম ইউনিয়নের কৃষক তাহের আলী, সগুনার আব্দুল ওয়াহাব, বারুহাসের খালেকসহ অনেক কৃষক জানান, জলাবদ্ধতা ও জোঁকের ভয় রয়েছে। এ কারণে শ্রমিকরা ধান কাটতে যেতে চায় না। অনেক কষ্টে রাজি করানো গেলেও আকাশচুম্বি মজুরির দাবি করছে তারা। প্রতি মণ ধানে শ্রমিককে দিতে হচ্ছে অর্ধেক। অথবা বিঘা প্রতি ৩ থেকে সাড়ে ৩ হাজার টাকা মজুরির বিনিময়ে শ্রমিকরা কাজ করতে রাজি হচ্ছেন। ফলে উৎপাদন খরচও উঠে আসা কঠিন বলে দাবি করছেন তারা।

তাড়াশ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম জানান, শুকনো অঞ্চলগুলোতে জমির ধান কাটা প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। তবে ওইসব অঞ্চলে জলাবদ্ধতার কারণে ধান কাটতে দেরি হয়ে যাচ্ছে। শ্রমিকের সংকট ও অধিক মজুরির দাবির কারণে সময়মতো এসব অঞ্চলের ধান কাটতে পারছেন না কৃষক।

ইউসুফ দেওয়ান রাজু/আরএ/জেআইএম