উচ্চ বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে গৃহবধূকে সৌদি পাচার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:৫৩ পিএম, ১১ জুলাই ২০১৮
ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় উচ্চ বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে কহিনূর বেগম নামে এক গৃহবধূকে সৌদি আরবে পাচারের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ফিরোজা বেগম নামে এক নারীর বিরুদ্ধে বুধবার বন্দর থানায় অভিযোগ দিয়েছেন গৃহবধূর স্বামী আব্দুল কাদীর মিয়া।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বন্দর উপজেলার ছালেহনগর এলাকার রিকশাচালক আব্দুল কাদির মিয়া স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে চরম কষ্টে জীবন যাপন করছেন। এ সুবাধে একই উপজেলার ঝাউতলা এলাকার ইকবাল মিয়ার স্ত্রী ফিরোজা বেগম আব্দুল কাদির মিয়ার স্ত্রী কহিনূর বেগমকে নানা প্রলোভন দেখাতে শুরু করেন। এমনকি উচ্চ বেতনের চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখানো শুরু করেন।

একপর্যায়ে ফিরোজা বেগমের ফাঁদে পা দিয়ে কহিনূর বেগম সৌদি আরবে যেতে রাজি হন। গত ২০১৬ সালের ২৬ আক্টবর তাকে ফুঁসলিয়ে সৌদি আরবে বিক্রি করে দেন ফিরোজা বেগম। সৌদি আরবে যাওয়ার দুই বছরের মধ্যে কহিনূর একবারও তার স্বামী ও সন্তানদের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি। আর কহিনূরকে কোথায় চাকরি দিয়েছে তা স্পষ্টভাবে ফিরোজা বেগম বলছেন না। কিছু বলতে গেলে কাদিরকে নানাভাবে হুমকি দেন ফিরোজা বেগম। অসহায় আব্দুল কাদির মিয়া তার স্ত্রী কহিনূরকে দেশে ফেরত আনতে চাইলে ফিরোজা বেগম কাদিরের কাছে অর্থ দাবি করে বিভিন্নভাবে হুমকি দেন।

বন্দর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম শাহিন মন্ডল বলেন, অভিযোগ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শাহাদাত হোসেন/আরএআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :