চোরাকারবারিদের সঙ্গে বিজিবির গোলাগুলি, পথচারী কিশোর নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ১০:৪৩ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০১৯

সিলেটের কানাইঘাটের সুরাইঘাট সীমান্তের সনাতনপুঞ্জি এলাকায় বিজিবির সঙ্গে চোরাকারবারিদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের সময় গুলিতে সিরাজ আহমদ বাশার (১৩) নামে পথচারী এক কিশোর নিহত হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় এ ঘটনা ঘটে। সিরাজ আহমদ সনাতনপুঞ্জি গ্রামের আব্দুল মোতালিবের ছেলে।

এ ঘটনা বিজিবি ১৯ ব্যাটালিয়নের চার সদস্য আহত হয়েছেন। তারা হলেন বিজিবির এসিপি সাইদ, নায়েক ইমাম, নায়েক নুর নবী। আহত দুই বিজিবি সদস্যকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কানাইঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আহাদ বলেন, সোমবার সন্ধ্যায় কানাইঘাটের সোনারতল সীমান্তে চোরকারবারিদের ধরতে অভিযান চালায় বিজিবি। চোরাকারবারিদের সাথে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার সময় বিজিবির গুলিতে স্থানীয় ওই কিশোরের মৃত্যু হয়। সে সীমান্ত এলাকা দিয়ে বাজার করে বাড়ি ফিরছিল।

বিজিবি-১৯ ব্যাটালিয়ানের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর মো. মেজবাহ উদ্দিন রাসেল জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির একটি টহল দল সোনারতল সীমান্তে চার কার্টন ভারতীয় সিগারেট জব্দ করে। একপর্যায়ে চোরাকারবারিরা টহল দলকে ঘেরাও দিয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় চার বিজিবি সদস্য আহত হন।

তিনি দাবি করেন, একপর্যায়ে হামলাকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে বিজিবি। চোরাকারবারিরাও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। বিজিবিও গুলি ছুঁড়তে থাকলে একপর্যায়ে হামলাকারীরা পিছু হটলে জব্দকৃত সিগারেট নিয়ে চলে আসে বিজিবি।

আহতদের কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক কিশোরকে হাসপাতালে আনা হয়। পরে তারা জানতে পারেন সীমান্তের জিরোলাইনে গোলাগুলির সময় গুলিবিদ্ধ হয় কিশোর। তবে কার গুলিতে নিহত হয়েছে এটা জানা যায়নি।

ছামির মাহমুদ/জেডএ/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :