রাজবাড়ীতে রেলের বিভাগীয় কার্যালয় হবে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী
প্রকাশিত: ০৪:৩২ পিএম, ০৪ এপ্রিল ২০১৯

রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, বিগত সরকারের আমলে রেলকে গুরুত্ব না দেয়ায় রেল ব্যবস্থা প্রায় ভেঙে পড়েছিল। বর্তমান সরকার পুনরায় রেলকে সংস্কার করে নতুন গতি দিয়েছে। রাজবাড়ী একটি ঐতিহাসিক রেলের শহর। রাজবাড়ীতে রেলের বিভাগীয় কার্যালয় স্থাপন করা হবে। সেই সঙ্গে এখানে রেলওয়ে কারখানা নির্মাণ করা হবে। যেখানে রেলের ইঞ্জিন নির্মাণ, বগি সংস্কার ও পুনর্নির্মাণ করা হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সুধীজনের সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

রেলপথ মন্ত্রী বলেন, সারাদেশে নতুন রেল লাইন তৈরি ও বর্ধিত করার পাশাপাশি নতুন রেল চালুর মধ্যে দিয়ে রেলকে একটি নির্ভরযোগ্য ও জন সাধারণের বাহন করা হবে। বর্তমান সরকারের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রতিটি জেলায় রেলের কার্যক্রম সম্প্রসারণ করা হবে।

তিনি আরও বলেন, ১৯৮৬ সালের পর থেকে রেলে নতুন কোনো নিয়োগ দেয়া হয়নি। এ সময়ে হাজার হাজার কর্মী অবসরে গেছেন। এরপর ১৯৯১ সালে বিএনপি-জামায়াত জোট এক সঙ্গে প্রায় ১০ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করেছে। সে সময় রেল অভিভাবকহীন সংস্থায় পরিণত হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনায় বর্তমান সরকার সেখান থেকে বেড়িয়ে আসার চেষ্টা করছে। সঠিক ও পরিপূর্ণভাবে রেল চলাচল শুরুর পর রেলের সকল অবৈধ সম্পদ উদ্ধার করা হবে।

রেলপথ মন্ত্রী বলেন, পহেলা বৈশাখে রাজশাহী থেকে ঢাকা পর্যন্ত একটি নতুন ট্রেনের উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। এ ট্রেনটি শুক্রবার ছাড়া সপ্তাহে ছয়দিন চলবে। এভাবেই রেলের উন্নয়ন করা হচ্ছে।

এ সময় রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি কাজী কেরামত আলী, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মজিবুর রহমান, রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক মো. শওকত আলী, জেলা পরিষদ সদস্য ফকির আব্দুল জব্বার, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

রুবেলুর রহমান/আরএআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :