ফরিদপুরেও দুই বাসের সংঘর্ষে ৩ জন নিহত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ১২:৩৬ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০১৯

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় দুটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত ও কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়েছেন। প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী উদ্ধার অভিযান চালিয়ে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কের বিশ্বরোড সংলগ্ন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, নগরকান্দা উপজেলার রামনগর গ্রামের ধলা ফকিরের ছেলে বাসচালক রওশন ফকির (৪৫) ও রাজবাড়ী জেলার পাচুরিয়া গ্রামের লক্ষণ কুন্ডর স্ত্রী বাসযাত্রী মিরা কুন্ডু (৬০)। তবে অপর ব্যক্তির নাম এখনও জানা যায়নি।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতাউর রহমান জানান, বরিশাল থেকে রাজশাহীর উদ্দেশে ছেড়ে আসা তুহিন পরিবহন (রাজ মেট্রো ব-১১-০০৩২) ভাঙ্গা বিশ্বরোড অতিক্রম করার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা রাজু এন্টারপ্রাইজের (কুমিল্লা জ-০৪-০০৩২) সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই রাজু এন্টারপ্রাইজের চালক রওশন ফকির ও এক যাত্রী মারা যান। দুর্ঘটনায় আহত হন কমপক্ষে ৫০ জন। আহতদের উদ্ধার করে ফরিদপুর ও ভাঙ্গা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে হাসপাতালে আরও একজনের মৃত্যু হয়।

এ সময় সড়কের দুই প্রান্তে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। উদ্ধার অভিযানে উপজেলা প্রশাসন, ভাঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ, থানা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের সদস্যসহ স্থানীয় জনতা অংশ নেয়। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুকতাদিরুল আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ভাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুকতাদিরুল আহমেদ জানান, আহতদের উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এদিকে কক্সবাজার যাওয়ার পথে ফেনীর লেমুয়ায় একটি পিকনিকের বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কা লেগে ৮ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২০ জন।

বৃহস্পতিবার ভোরে সদর উপজেলার লেমুয়া ইউনিয়নে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের লেমুয়া ব্রিজের কাছে এই দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

সিকদার সজল/এফএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :