ফতুল্লায় নৈশপ্রহরীকে গলা কেটে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ১১:২৪ এএম, ২১ আগস্ট ২০১৯
ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় আবুল কালাম (৫০) নামে এক নৈশপ্রহরীকে জবাই করে হত্যা করেছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। তার বাড়ি বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার চাতপাশা গ্রামে। বাবার নাম মৃত. আব্দুল গনি ঢালি।

বুধবার (২১ আগস্ট) ভোররাতে ফতুল্লার পূর্ব শাহী মহল্লার এমএ মতিনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। বাড়িওয়ালার ধারণা ডাকাতিতে বাধা দেয়ায় তাকে হত্যা করা হয়েছে।

নিহত আবুল কালাম স্ত্রী ও দুই ছেলে এক মেয়ে নিয়ে ফতুল্লার শাহীবাজার এলাকার আলাউদ্দিন ডাক্তারের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন এবং একই এলাকায় নৈশপ্রহরীর কাজ করতেন।

বাড়িওয়ালার মেয়ের জামাই এনায়েত হোসেন জানান, তিনি ওই শ্বশুরের বাড়িতে পরিবার নিয়ে বসবাস ও ব্যবসা করেন। গত ১৫ আগস্ট স্বপরিবারে গ্রামের বাড়ি বরিশালে বেড়াতে যান। বুধবার সকালে ফিরে এসে দেখেন ঘরের দ্বিতীয় কক্ষে আসবাবপত্র এলোমেলো হয়ে আছে। এ অবস্থা দেখে তৃতীয় কক্ষে গিয়ে দেখেন নৈশপ্রহরী আবুল কালামের মুখে কচটেপ পেচানো, গলাকাটা রক্তাক্ত নিথর দেহ খাটের ওপর পড়ে আছে।

তিনি বলেন, এরপর আশপাশের লোকজনকে এ ঘটনা জানানো হয়। পরে ফতুল্লা মডেল থানার ওসিসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে।

তিনি আরও জানান, ডাকাতরা ডাকাতি করতে এসে নৈশপ্রহরীর বাধা দেয়ার কারনে তারাই জবাই করে হত্যা করে লাশ ফেলে চলে যায় বলে ধারনা করা হচ্ছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা এক নৈশপ্রহরীকে জবাই করে হত্যা করেছে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে এবং হত্যাকারীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

মো. শাহাদাত হোসেন/এমএমজেড/জেআইএম