ময়মনসিংহে তুচ্ছ ঘটনায় যুবক খুন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ময়মনসিংহ
প্রকাশিত: ০৩:৫৩ পিএম, ২৫ আগস্ট ২০১৯
প্রতীকী ছবি

ময়মনসিংহের নান্দাইলে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় সাইদুল ইসলাম (৩০) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। রোববার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার খারুয়া ইউনিয়নের দেওয়ানগঞ্জ বাজারে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত সাইদুল ইসলাম ওই ইউনিয়নের পূর্ব মহেষকুড়া গ্রামের এজাহার আলীর ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, কিছুদিন আগে রাতে স্থানীয় দেওয়ানগঞ্জ বাজারে দোকানে চা খাওয়ার সময় বর্তমান ইউপি সদস্য রিপুল ইসলামের ভাতিজা রাব্বির সঙ্গে একই গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মোকতুল হোসেন মল্লিকের ছেলের টর্চ লাইটের আলো চোখে পড়াকে কেন্দ্র করে ও বাগবিতণ্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার জেরে আজ রোববার দুপুর ১২টার দিকে সাবেক ইউপি সদস্য মোকতুল মল্লিকের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রতিপক্ষ রিপুল মেম্বারের লোকদের ওপর হামলা করে। এ সময় বাজারের ব্যবসায়ী সাইদুল ইসলামসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় সাইদুলকে পার্শ্ববর্তী হোসেনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়াও আহত পাঁচজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে পাভেল নামে এক যুবকের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা আরও জানায়, মহেষকুড়া গ্রামটি দেওয়ানগঞ্জ বাজারের কারণে দুই ভাগে বিভক্ত। পূর্ব মহেশকুড়া ও পশ্চিম মহেষকুড়া। পূর্ব মহেশকুড়ার শামছুল চেয়ারম্যানের গোষ্ঠীর সঙ্গে পশ্চিম মহেশকুড়ার মল্লিক গোষ্ঠীর দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে।

সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল হাসনাত ভূঁইয়া মিন্টু বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজকের এই হত্যাকাণ্ডটি হয়েছে। বিষয়টি সমাধানের জন্য একাধিকবার উদ্যোগ নিলেও ইউপি সদস্য রিপুল ইসলামের সমর্থকরা তাতে রাজি হয়নি। বর্তমান ইউপি সদস্য রিপুল ইসলামের সমর্থকরা সাবেক ইউপি সদস্য মোকতুল হোসেনের লোকজন স্থানীয় দেওয়ানগঞ্জ বাজারে আসতেও বাধা দিত। আজ তারা জোর করে বাজারে আসলে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

অতিরিক্তি পুলিশ সুপার (গৌরীপুর সার্কেল) সাখের আহম্মেদ সিদ্দিকী একজন নিহতের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, প্রথমে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র ঘটনার সূত্রপাত হলেও পরবর্তীতে দেওয়ানগঞ্জ বাজারের আধিপত্য বিস্তারের পর্যায়ে চলে যায়। এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

রকিবুল হাসান রুবেল/এমবিআর/পিআর