পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় শিশু সন্তানসহ গৃহবধূকে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখাালী
প্রকাশিত: ০৯:১১ এএম, ৩০ মে ২০২০

নোয়াখাালীতে আড়াই মাস বয়সী কন্যা সন্তানসহ গৃহবধূকে হত্যার ঘটনায় তার স্বামী আকবর আলী বাবরসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। নিহতের ভাই আবদুল করিম বাদী হয়ে শুক্রবার (২৯ মে) রাতে সুধারাম মডেল থানায় এ মামলা করেন। মামলায় নিহতের স্বামী, শাশুড়ি, দেবর ও স্বামীর কথিত প্রেমিকাকে আসামি করা হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে সদর উপজেলার নোয়াখালী ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের ৯৩ সল্লা গ্রামের মুন্না সাহেবের পুকুর পাড়ের একটি গাছে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় বিবি মরিয়ম (২৬) আর পাশের একটি পুকুর থেকে আড়াই মাস বয়সী মেয়ে মাইমুনা আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত বিবি মরিয়ম নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চর এলাহী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের গাঙচিল গ্রামের আবুল কাসেম মোল্লার মেয়ে। তিনি তিন সন্তানের জননী ছিলেন। বিবি মরিয়মের স্বামী আকবর আলী বাবর (৩০) একই এলাকার মৃত সোলেমানের ছেলে। তিনি কৃষি কাজ করেন।

নিহত বিবি মরিয়মের ভাই আব্দুল করিম বলেন, গত কয়েক মাস ধরে আকবর আলী বাবর পাশের বাড়ির এক কুমারী মেয়ের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছেন। এ নিয়ে কয়েকবার সামাজিকভাবে সালিশও হয়েছে। কিন্তু এ নিয়ে তাদের সংসারে প্রায়ই ঝগড়া বিবাধ চলছিল। এরই সূত্র ধরে তারা আমার বোনকে গভীর রাতে হত্যা করে মরদেহ গাছে ঝুলিয়ে দেয় এবং শিশু ভাগনিকে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেয়া হয়।

সুধারাম মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নবীর হোসেন জানান, নিহত গৃহবধূর স্বামীর সঙ্গে একই এলাকার এক মেয়ের পরকীয়া সম্পর্ক রয়েছে। এতে বাধা দেয়ায় শুক্রবার ভোররাতে তার স্বামী, তার পরিবারের লোকজন এবং স্বামীর প্রেমিকা মিলে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে।

মিজানুর রহমান/আরএআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]