আইপিএল নিয়ে জুয়া বন্ধে তৎপর কুড়িগ্রাম পুলিশ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ১১:৪৬ এএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) শুরু হওয়ায় ক্রিকেট ভক্তদের মাঝে বিরাজ করছে আনন্দের বন্যা। ক্রিকেটপ্রেমী বিভিন্ন বয়সের ও শ্রেণি পেশার মানুষ খেলা দেখার জন্য ভিড় জমাচ্ছেন শহর ও গ্রামের হাট-বাজারের বিভিন্ন হোটেল, রেস্তোরাঁ ও চায়ের দোকানে। এরই সুবাদে একটি শ্রেণি মেতে উঠেছে আইপিএলের চার-ছক্কার জুয়ায়। বলের উইকেটে ও ব্যাটের রানে সর্বস্বান্ত হচ্ছেন ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন পেশাজীবীরা। জুয়ার সেই রথকে থামাতে জড়িত থাকার অভিযোগে ছয় যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

আটকরা হলেন, কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার ভিতরবন্দ ইউনিয়নের দেবীপুর গ্রামের সন্তোষ চন্দ্র শীলের ছেলে প্রদীপ চন্দ্র ভোলা (৩২), একই গ্রামের মৃত কার্তিক চন্দ্র মোহন্তের ছেলে তপন কুমার মোহন্ত (৩৬), হাতিবান্দা গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে মঞ্জুরুল ইসলাম (৩২), দেবীপুর (পণ্ডিত পাড়া) গ্রামের মৃত মাসুদ রানার ছেলে নাজমুল হক লাবু (২৩), একই গ্রামের শহীদ আলীর ছেলে মুসা মিয়া (২৪) ও একই এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে বিপ্লব মিয়া (২০)।

রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে ভিতরবন্দ ইউনিয়নের দেবীপুর গ্রামের ২নং আসামি তপন কুমার মোহন্তের ঘরে আইপিএল জুয়ায় লিপ্ত থাকার সময় উল্লিখিত আসামিদের আটক করা হয়। এ সময় জুয়া খেলায় ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও টিভি জব্দ করা হয় বলে জানিয়েছেন নাগেশ্বরী থানার ওসি রওশন কবির।

ওসি জানান, আইপিএলকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন হাট বাজারের দোকানগুলোতে জুয়া চলে। সেই জুয়া বন্ধ করতে আমরা এ অভিযান শুরু করেছি। আমরা এ অভিযান অব্যাহত রাখব।

অভিযানের বিষয়ে কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার মো. মহিবুল ইসলাম খাঁন কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপারের ফেসবুক পেজে জেলাবাসীকে সতর্ক করে জানিয়েছেন, সন্ধ্যার পর বিভিন্ন বাজারের টিভিতে আইপিএল দেখানো ও জুয়ার বিরুদ্ধে অভিযান চলবে। আপনার সন্তানদের সন্ধ্যার পর বাসায় অবস্থান নিশ্চিত করুন, জুয়া ও নেশার কবল থেকে রক্ষা করুন। মাদক ও জুয়ার বিরুদ্ধে জেলা পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন। সকল তথ্যদাতার নাম ও পরিচয় গোপন রাখা হবে।

এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]