জামালপুরের তিন পৌরসভায় ভোট আজ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি জামালপুর
প্রকাশিত: ০৫:৪৮ এএম, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

জামালপুরের তিনটি পৌরসভা (জামালপুর, ইসলামপুর ও মাদারগঞ্জ) নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আজ রোববার। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলবে। তিন পৌরসভায়ই আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটসহ পর্যাপ্ত পরিমাণ পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনটি পৌরসভায়ই ভোটগ্রহণ করা হবে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। বিষয়টি নিয়ে ভোটারদের মধ্যে রয়েছে উৎসাহ লক্ষ্য করা গেছে।

জামালপুর সদর পৌরসভা

প্রথম শ্রেণির জামালপুর পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৮ হাজার ৭২৭ জন। যার মধ্যে পুরুষ ৫২ হাজার ১৫১ জন ও নারী ৫৬ হাজার ৫৭৬ জন। এ পৌরসভায় মেয়র পদে তিন জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন ও সংরক্ষিত আসনে নারী কাউন্সিলর পদে ১৩ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত মো. ছানুয়ার হোসেন ছানু নৌকা প্রতীকে, বিএনপি মনোনীত অ্যাডভোকেট শাহ মো. ওয়ারেছ আলী মামুন ধানের শীষ প্রতীকে, ইসলামী আন্দোলনের মুফতি মোস্তফা কামাল হাতপাখা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ১২টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৫ নম্বর ওয়ার্ডে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় বর্তমান কাউন্সিলর রাজীব সিংহ সাহা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এখানে ৪২টি কেন্দ্রে ৩৪১টি বুথে ভোট গ্রহণ করা হবে।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ১৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ১ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, ৭৭০ জন পুলিশ সদস্য, র‍্যাবের ৫টি টহল টিম, ৬ প্লাটুন বিজিবি ও ৩৩৬ জন আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

ইসলামপুর পৌরসভা

এটিও প্রথম শ্রেণির পৌরসভা। মোট ৩০ হাজার ২৬০ জন ভোটারের মধ্যে পুরুষ ১৪ হাজার ৭৮৫ জন ও নারী ১৫ হাজার ৪৭৫ জন। এ পৌরসভায় মেয়র পদে চার জন, ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩ জন ও সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলর পদে ১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত আব্দুল কাদের সেখ নৌকা প্রতীকে, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এস.এম জাহাঙ্গীর আলম জগ প্রতীকে, বিএনপি মনোনীত রেজাউল করিম ঢালী ধানের শীষ প্রতীকে, ইসলামী আন্দোলনের আনিছুর রহমান হাতপাখা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। পৌরসভার ১৩টি ভোট কেন্দ্রের ৯৮টি বুথে ভোট গ্রহণ করা হবে।

নির্বাচনে দায়িত্ব পালন করছেন ৯ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ১ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, ২৪৫ জন পুলিশ সদস্য, র‍্যাবের ৩টি টহল টিম, ৩ প্লাটুন বিজিবি ও ১০৪ জন আনসার সদস্য।

মাদারগঞ্জ পৌরসভা

মাদারগঞ্জও প্রথম শ্রেণির পৌরসভার অন্তর্ভুক্ত। এ পৌরসভায় ২৫ হাজার ৩৮ জন ভোটারের মধ্যে পুরুষ ১২ হাজার ৩৭৮ জন ও নারী ১২ হাজার ৬৬০ জন। এ পৌরসভায় মেয়র পদে তিন জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৪ জন ও সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলর পদে ৮ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত মির্জা গোলাম কিবরিয়া কবির নৌকা প্রতীকে, বিএনপি মনোনীত আব্দুল গফুর ধানের শীষ প্রতীকে, জাতীয় পার্টি মনোনীত জাহিদ হাসান লাঙল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ৯টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৪নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে হাসানুজ্জামান সাগর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। পৌরসভার ১০টি ভোট কেন্দ্রের ৮০টি বুথে ভোট গ্রহণ করা হবে।

নির্বাচনের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ১১ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ১ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, ১৮৫ জন পুলিশ সদস্য এবং র‌্যাব, বিজিবি ও আনসার সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা জানান, জামালপুর, ইসলামপুর ও মাদারগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা মোকাবিলায় পর্যাপ্ত আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যসহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটরা দায়িত্ব পালন করবেন।

জেলা নির্বাচন অফিস ইভিএমে ভোট গ্রহণের জন্য শনিবার সকাল থেকে জামালপুর শহরের শাহ জামাল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিভিন্ন নির্বাচনী সরঞ্জাম কেন্দ্রগুলোতে পাঠানো হয়েছে।

এসএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]