বরিশালে ইউএনওর বাসভবনে হামলায় দুই মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৩:০১ পিএম, ১৯ আগস্ট ২০২১

বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুনিবুর রহমানের সরকারি বাসভবনে হামলার ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। একটি মামলার বাদী পুলিশ। অপরটির বাদী ইউএনও নিজে।

বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) বিকেল পৌনে ৩টার দিকে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) আলী আশরাফ ভূঞা।

এদিকে এ হামলার ঘটনায় ১২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক সবাই আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, ইউএনওর সরকারি বাসভবনে হামলার ঘটনায় মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন ওরফে ফিরোজ, জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি অলিউল্লাহ অলি, নগরীর ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ১১ জনকে আটক করা হয়েছে। এর আগে রাতে ঘটনাস্থল থেকে মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান বাবুকে আটক করা হয়।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) আলী আশরাফ ভূঞা জানান, ইউএনওর সরকারি বাসভবনে হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এখন পর্যন্ত ১২ জনকে আটক করা হয়েছে। জড়িত অন্যদের আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। পাশাপাশি এ হামলার ঘটনায় দুটি মামলা হয়েছে। একটির বাদী হয়েছে পুলিশ। অপর মামলাটি ইউএনও নিজেই করেছেন।

এদিকে নগরীর কালীবাড়ি রোডের সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর বাসভবনের সামনে সকাল ১০টার দিকে বিপুলসংখ্যক পুলিশ সদস্য অবস্থান নেন। পরে মেয়রের নির্দেশে বাস চলাচল শুরু হলে পুলিশ সদস্যরা সেখান থেকে চলে যান।

এর আগে বুধবার (১৮ জুলাই) দিবাগত রাতে বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুনিবুর রহমানের সরকারি বাসভবনে কয়েক দফায় হামলা চালানো হয়। এ ঘটনায় পুলিশ ও আনসার সদস্যসহ অন্তত ৩০-৪০ জন আহত হন।

সাইফ আমীন/এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]