সাতক্ষীরায় অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার, গ্রেফতার যুবক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৮:২৯ এএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি

সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আত্মহত্যার প্ররোচনায় করা মামলায় রফিকুল ইসলাম নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার থানাঘাটা মোল্লাপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, একই এলাকার মোল্লাপাড়ার বাবুল রাজমিস্ত্রির ছেলে রফিকুলের সঙ্গে ওই মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন তিনি। একপর্যায়ে কিশোরী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে পরিবারের জানাজানি হয়।

রফিকুলকে ওই মেয়ের পরিবার থেকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হলেও তিনি রাজি হন না। পরে শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) সালিশ বৈঠক হলেও রফিকুল ও তার পরিবার বিয়ের বিষয়টি মেনে নেয়নি। এর পরদিন রোববার ভোরে কিশোরীর গলায় ফাঁস দেওয়া মরদেহ দেখতে পান স্বজনরা। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান জাগো নিউজকে জানান, রোববার মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মেয়ের বাবা বাদী হয়ে সোমবার সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি মামলা করেন।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হুসেইন জাগো নিউজকে জানান, সোমবার দুপুরে মামলায় অভিযুক্তদের মধ্যে রফিকুল ইসলাম নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিরা পলাতক রয়েছেন। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

আহসানুর রহমান রাজীব/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]