রিকশা চুরির অপবাদে মারধর, পরদিন মিললো ঝুলন্ত মরদেহ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০১:১১ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
প্রতীকী ছবি

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে চুরির অপবাদে মারধরের একদিন পর মোহাম্মদ হাশেম (২৭) নামে এক রিকশাচালকের ঝুলন্ত মরদেহ পাওয়া গেছে।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ।

মৃত হাশেম চট্টগ্রামের ফটিকছড়ির হেয়াকো নতুন পাড়ার মো. হেঞ্জু মিয়ার ছেলে। দীর্ঘদিন তিনি চৌমুহনী পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের গনিপুর খালপাড়ের ভাড়া বাসায় থেকে রিকশা চালাতেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গনিপুর সোলেমানের গ্যারেজ থেকে ভাড়ায় রিকশা চালাতেন মোহাম্মদ হাশেম। কিছুদিন আগে গ্যারেজ মালিকের একটা রিকশা চুরি হয়। ওই রিকশা চুরির অপবাদ দিয়ে সোলেমান ও তার ছেলে রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে হাশেমকে ধরে নিয়ে মারধর করেন। পরে ফারুক নামের এক ব্যক্তি ৪০ হাজার টাকা জরিমানা দেবেন বলে হাশেমকে সন্ধ্যায় ছাড়িয়ে নিয়ে আসেন।

এ ঘটনার পর সোমবার সকালে নিজ ঘরে বাঁশের সঙ্গে গলায় ওড়না প্যাঁচানো মরদেহ দেখতে পান তার স্ত্রী। পরে তাকে উদ্ধার করে বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান সিকদার বলেন, মরদেহের সুরতহাল করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

ইকবাল হোসেন মজনু/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]