নোয়াখালীতে পরাজিত কাউন্সিলর প্রার্থীকে পেটানোর অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০৯:৩৭ এএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

নোয়াখালীর কবিরহাট পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের পরাজিত কাউন্সিলর প্রার্থী মো. শরীফুল ইসলাম বাবলুকে (৩১) পেটানোর অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে কবিরহাটের হক টাওয়ারের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে বাবলুর দোকানে বর্তমান কাউন্সিলর শহীদ উল্যাহ দেখা করতে যান। এ সময় বাবলু না দাঁড়ানোয় ক্ষুব্ধ হন শহীদ উল্যাহর অনুসারীরা। বুধবার তার অনুসারী কয়েকজন বাবলুর ওপর এ হামলা চালায়। আহত বাবলুকে বাজারের ব্যবসায়ীরা উদ্ধার করে কবিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ বিষয়ে সদ্যবিজয়ী কাউন্সিলর আবুল বাসার বাবুল বলেন, শহীদের লোকজন ‘কিশোর গ্যাং’ নিয়ন্ত্রণ করে। তারাই এ ন্যাক্কারজনক হামলা চালিয়েছে। হাসপাতালে বাবলুকে দেখে এসে বিষয়টি পৌর মেয়র জহিরুল হক রায়হানকে অবহিত করেছি।

আহত বাবলুর বড়ভাই মো. রফিকুল ইসলাম টিপু অভিযোগ করে বলেন, শহীদের নির্দেশে তার অনুসারীরা এ হামলা চালিয়েছে। আবারও হামলার আশঙ্কায় বাবলুকে রাতে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নেওয়া হয়েছে। হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানাচ্ছি।

তবে মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করে কাউন্সিলর মো. শহীদ উল্যাহ বলেন, নির্বাচনের পর আমি শরীফুল ইসলাম বাবলুর দোকানে দেখা করতে গেলে সে আমাকে অসম্মান করে। এ নিয়ে আমার লোকজনের মধ্যে ক্ষোভ ছিল। তবে আমি কাউকে হামলার নির্দেশ দেইনি।

কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) টমাস বড়ুয়া জাগো নিউজকে বলেন, এ বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) কবিরহাট পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ৫ নম্বর ওয়ার্ডে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এরমধ্যে আবুল বাসার বাবুল (পাঞ্জাবী) ৫৭২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।

ইকবাল হোসেন মজনু/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]