সাতক্ষীরায় এনজিওর বিরুদ্ধে সরকারি খাল দখলের অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০১:৫১ পিএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ সরকারি কলেজের সামনের খাল দখলের অভিযোগ উঠেছে ‘সুশীলন’ নামে একটি বেসরকারি সংস্থার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় এলাকাবাসী ও কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে ক্ষোভের।

কলেজের প্রাক্তন ছাত্র আজিজুর রহমান বলেন, ‘আমরা যখন কলেজে পড়তাম তখন দেখেছি কলেজের সামনের খাল দিয়ে কলেজসহ আশপাশের এলাকার পানি নিষ্কাশন হতো। সম্প্রতি সরকারি খালটির দুই পাশে বেড়া দিয়ে নিজেদের দখলে নিয়েছে কলেজের সামনে অবস্থিত এনজিও ‘সুশীলন’। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।’

স্থানীয় বাসিন্দা ফিরোজ কবির বলেন, ‘আমরা সারাজীবন দেখে আসছি খালটি কলেজের নামে ব্যবহার হয়ে আসছে। করোনার কারণে কলেজ বন্ধ থাকার সুযোগে ‘সুশীলন’ নামে ওই এনজিও খালটি দখল করে নিজেদের করে নিয়েছে। যার কারণে কয়েকটি এলাকার পানি নিষ্কাশনের সমস্যা দেখা দিয়েছে। খালটি যখন উন্মুক্ত ছিল তখন এলাকার মানুষ বর্ষা মৌসুমে বরশি, জাল ফেলে মাছ ধরতো।’

কলেজের অধ্যক্ষ জি এম রফিকুল ইসলাম জানান, ‘আমার চাকরির আগে থেকে ওই খালটি কলেজের আয়ত্ত্বে ছিল। আশপাশের এলাকার পানি নিষ্কাশনের কাজে ব্যবহার হতো খালটি। খালের পাশে কলেজের একটি সাইনবোর্ড ছিল। তবে করোনার সময় কলেজ বন্ধ থাকার সুযোগ কাজে লাগিয়ে বেড়া দিয়ে খালটি দখলে নিয়েছে সুশীলন কর্তৃপক্ষ।’

সুশীলনের নামে ওই এনজিওটির উপ-পরিচালক আক্তারুজ্জামান পল্টু বলেন, ‘আমরা কোনো খাল দখল করিনি। খালের পাশে কিছু গাছ লাগিয়েছিলাম সেগুলো রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বেড়া দেওয়া হয়েছে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার রবিউল ইসলাম জানান, বিষয়টি নিয়ে তিনি কিছু জানতেন না। এ বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

আহসানুর রহমান রাজীব/ এফআরএম/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]