‘ব্যালান্স ট্যাংক পূর্ণ না থাকায় হেলে পড়ে ফেরি’

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৯ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০২১

ব্যালান্স ট্যাংক পূর্ণ না থাকায় নদীতে হেলে পড়ে ‘আমানত শাহ’ নামের রো রো ফেরিটি। এতে ফেরিতে থাকা ১৪টি কাভার্ডভ্যান, ১০-১২টি মোটরসাইকেল পানিতে পড়ে যায়।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা বিভাগের উপ-পরিচালক দিনমণি শর্মা জাগো নিউজকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনার সময় পাটুরিয়া ফেরিঘাট সংলগ্ন নৌ পুলিশের একটি টিম অবস্থান করছিল। ওই টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করেন। বর্তমানে পাঁচজন ডুবুরি উদ্ধার অভিযানে অংশ নিচ্ছেন।

acc1

দিনমণি শর্মা বলেন, ঢাকা থেকে দুটি ডুবুরি ইউনিট, একাধিক নৌ টিম ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওয়ানা দিয়েছে। কোনো ধরনের হতাহত না পাওয়া পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চলবে।

যানবাহনগুলো নদীতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এসব যানবাহনের চালক-হেলপারসহ সহযোগীদের সম্পর্কে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। এখন পর্যন্ত নিখোঁজের দাবি নিয়ে কেউ আসেননি আমাদের কাছে।

acc1

এর আগে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ফেরিঘাট পন্টুনে নোঙর করার পর হেলে পড়ে শাহ আমানত ফেরি। এতে দু-তিনটি গাড়ি নামতে পারলেও বাকিগুলো পানিতে পড়ে যায়।

সকালে শিবালয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেসমিন সুলতানা ফেরিতে ১৭টি ট্রাক ও কয়েকটি মোটরসাইকেল ছিল উল্লেখ করলেও ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা ফেরিতে ১৪টি কাভার্ডভ্যান ছিল বলে জানান। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি বলেছেন উভয় কর্মকর্তা।

আরএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]