ডুবে যাওয়া ফেরি থেকে যানবাহন উদ্ধারে চলছে অভিযান

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী
প্রকাশিত: ১১:১৮ এএম, ২৮ অক্টোবর ২০২১

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ায় ডুবে যাওয়া ফেরি আমানত শাহের ভেতরে থাকা যানবাহন উদ্ধারে দ্বিতীয় দিনের মতো উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ উদ্ধার অভিযান শুরু হয়।

বিআইডব্লিউটিএর উদ্ধারকারী জাহাজ হামজার পাশাপাশি উদ্ধার কাজে অংশ নিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস, কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনীর সদস্যরা।

গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত চলে প্রথমদিনের উদ্ধার অভিযান। প্রথমদিন তিনটি ট্রাক ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। তবে এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে উদ্ধারকাজে উদ্ধারকারী জাহাজ প্রত্যয়ের যুক্ত হওয়ার কথা থাকলেও ঘটনার প্রায় ২৪ ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও এখনও যুক্ত হয়নি।

বুধবার সকালে গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ১৭টি পণ্যবাহীবাহী ট্রাক ও বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেলসহ রো রো ফেরি আমানত শাহ পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ঘাটে আসার পর তলা দিয়ে পানি প্রবেশ করে কাত হয়ে ডুবে যায়। এসময় স্রোতে বেশ কয়েকটি পণ্যবাহী ট্রাক ভেসে গেলেও অন্যান্য ট্রাক ও মোটরসাইকেল ডুবে যায়। তবে কোনো যাত্রী বা চালক নিখোঁজের খবর পাওয়া যায়নি। ঘটনার পরপরই উদ্ধার অভিযান শুরু হয়।

বিআইডব্লিউটিসির নৌযানের তালিকা অনুযায়ী, রো রো ফেরি আমানত শাহ ১৯৮০ সালে তৈরি। এই ফেরি ৩৩৫ যাত্রী ও ২৫টি যান বহন করতে পারে। সর্বোচ্চ ১০.২৫ নটিক্যাল মাইল গতিতে চলতে পারে।

এদিকে ফেরিডুবির ঘটনায় স্থানীয় প্রশাসন চার সদস্যের ও নৌ-মন্ত্রণালয় সাত সদস্যের পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

বিআইডব্লিউটিসি আরিচা অঞ্চলের উপ-মহাব্যবস্থাপক জিল্লুর রহমান জানান, দ্বিতীয় দিনের মতো উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। প্রথমদিনে তিনটি ট্রাক ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। আজ এখন একটি ট্রাক তোলার চেষ্টা চলছে। কয়েকটি ট্রাক ভেসে গেছে। তাছাড়া কয়েকটি ট্রাকের অবস্থান শনাক্ত করা হয়েছে।

এছাড়া উদ্ধারকারী জাহাজ গতকাল রওনা হলেও আজ সকাল ১০টা পর্যন্ত আসেনি বলে জানান তিনি।

রুবেলুর রহমান/বিএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]