বাবার স্মরণে ৪০০ রোগীকে ফ্রি চিকিৎসা

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি কলাপাড়া (পটুয়াখালী)
প্রকাশিত: ০৮:২৮ এএম, ০৫ মে ২০২২

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় প্রয়াত বাবার স্মরণে চারশ’ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দিয়েছেন ডাক্তার ছেলে ও পুত্রবধূ।

বুধবার (৪ মার্চ) উপজেলার ধুলাস্বার ইউনিয়নের অনন্ত পাড়া হাফেজিয়া মাদরাসা মাঠ প্রাঙ্গণে দিনব্যাপী এই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করেন উক্ত গ্রামের প্রয়াত বাসিন্দা মো. রফিকুল ইসলাম হাওলাদারের ছেলে ডা. মো. আতিকুল ইসলাম ও তার পুত্রবধূ ডা. ফারিয়া ফেরদৌস।

বাবার স্মরণে ৪০০ রোগীকে ফ্রি চিকিৎসা

ওই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন পটুয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য মহিব্বুর রহমান। ক্যাম্পের সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন ‘মানবতার ডাক’ নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

পুরুষ ও নারী রোগীদের পৃথকভাবে ব্যবস্থাপত্র প্রদান, রক্তের গ্রুপ নির্ণয়, ডায়াবেটিক চেক-আপ, ডেন্টাল চেক-আপ, রক্তচাপ নির্ণয়সহ বেশ কয়েকটি ফ্রি চিকিৎসা করা হয় এই ক্যাম্পে।

বাবার স্মরণে ৪০০ রোগীকে ফ্রি চিকিৎসা

বালিয়াতলী ইউনিয়নের কোহিনুর বেগম (৫৫) বলেন, আমি কল্পনাই করতে পারিনি গ্রামে একসঙ্গে ডায়াবেটিস, ব্লাড, ডেন্টালের এমবিবিএস ডাক্তার দ্বারা চিকিৎসা নিতে পারবো। আমার অনেক উপকার হলো।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য মহিব্বুর রহমান বলেন, এই প্রথম কলাপাড়া উপজেলায় একইসঙ্গে দুজন এমবিবিএস ডাক্তার ডেন্টাল চিকিৎসক নিয়ে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প পরিচালনা করলেন। প্রত্যন্ত অঞ্চলে এমন ফ্রি চিকিৎসা পেয়ে খুসি সাধারণ মানুষ। যাদের অনেকেরই সামর্থ্য ছিল না চিকিৎসা করানোর মতো। এই এলাকার জন্য আতিকুলের মতো সন্তানরা গর্বের।

বাবার স্মরণে ৪০০ রোগীকে ফ্রি চিকিৎসা

সার্বিক দায়িত্বে থাকা মানবতার ডাক সংগঠনের সভাপতি অহিদুল ইসলাম জানান, বালিয়াতলী, ধুলাসার, মিঠাগঞ্জ ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়নের প্রায় চারশোর বেশি রোগী চিকিৎসা নেন। এমন আয়োজন এই এলাকায় প্রথম হওয়ায় প্রতিটি মানুষ তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছেন। আমরা চাই এমন আয়োজন প্রতিবছর হোক।

ডা. মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, আমি এই এলাকার সন্তান। বাবা বেঁচে না থাকলেও বাবার বয়সের অনেক গরিব মানুষ এখানে রয়েছেন যারা টাকায় অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না। তাই বাবার স্মরণে আজ এলাকায় এই আয়োজন করেছি। প্রতি বছরই এমন আয়োজন করবো।

আসাদুজ্জামান মিরাজ/এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]